ভারতে চিকিৎসাক্ষেত্রে ধর্ম, জাতি, লিঙ্গ বৈষম্যের ভয়াবহ চিত্র প্রকাশিত অক্সফ্যাম ইন্ডিয়ার রিপোর্টে

0
31

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

ভারতে চিকিৎসা ক্ষেত্রে বৈষম্যের উপর অক্সফ্যাম ইন্ডিয়ার এক সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে মঙ্গলবার, তাতে উঠে এসেছে বেশ কিছু বিস্ফোরক তথ্য। দেশের ২৮টি রাজ্য ও ৫টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে মোট ৩৮৯০ জনের ওপর একটি সমীক্ষা চালায় অক্সফ্যাম ইন্ডিয়া, তারই রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে এদিন।

Oxfam

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ভারতে ধর্ম ও জাতিগত বিভেদের ভিত্তিতে চিকিৎসাক্ষেত্রে কি ভয়ানক বৈষম্যের মুখে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। রিপোর্টে দেখা গিয়েছে সমীক্ষায় অংশ নেওয়া ৩৩% ইসলাম ধর্মাবলম্বী মানুষ, ২২% তফশিলি উপজাতি, ২১% তফশিলি জাতির মানুষ এবং অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণীর ১৫% মানুষ জানিয়েছেন হাসপাতালে তাঁদের কিভাবে বৈষম্যের মুখে পড়তে হয়েছে। সমীক্ষা চালাতে গিয়ে তাঁরা দেখেছেন “অস্পৃশ্যতা” এখনও ভারতীয় সমাজে কিভাবে বিদ্যমান। বহু ক্ষেত্রে চিকিৎসকরা নাড়ি পরীক্ষা করার জন্য দলিত ব্যক্তিদের হাত ধরতে ঘৃণা বোধ করেন।

অক্সফ্যাম ইন্ডিয়ার এই সমীক্ষক দলের নেতৃত্বে ছিলেন অ্যাঞ্জেলা তানেজা। তাঁর বক্তব্যে উঠে এসেছে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রাথমিক পর্যায়ে কিভাবে তবলিঘি জামাতে যোগ দেওয়া ব্যক্তিদের সংক্রমণ ছড়ানোর জন্য দায়ী করা হয়েছিল। এমনকি গোটা মুসলমান সম্প্রদায়ের প্রতি এই বিষয়ে ঘৃণা এবং বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুনঃ পাঞ্জাব নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে ‘লক্ষ্মী ভান্ডার’-এর আদলে নয়া প্রকল্পের ঘোষণা কেজরিওয়ালের

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে সালে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন কর্তৃক প্রণয়ন করা হয় রোগীদের অধিকারের সনদ। কিন্তু তাতে যে কাজ কিছুই হয়নি তা সমীক্ষার ফলেই দেখা গিয়েছে। সামগ্রিকভাবে সমীক্ষার ফলে প্রকাশ, চিকিৎসায় বৈষম্যের ক্ষেত্রে তফশিলি জাতি ও উপজাতির তুলনায় জেনারেল ক্যাটাগরির মানুষ অনেকটাই ভাল অবস্থানে আছেন, মুসলমানদের তুলনায় হিন্দুদের অবস্থান অনেক ভাল, মহিলাদের তুলনায় পুরুষদের অবস্থান অনেক ভাল, দরিদ্রদের থেকে ধনীরা অবশ্যই ভাল অবস্থানে এবং একই ভাবে গ্রামের চাইতে শহরের অবস্থান অনেকটা এগিয়ে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here