নতুন-পুরানোর দ্বন্দ্বে ফাটল বোমা সঙ্গে লুটপাট

0
42

ভাস্কর ঘোষ, জঙ্গিপুর: নব ও আদি তৃনমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বোমাবাজির ঘটনায় উত্তপ্ত মুর্শিদাবাদের সুতি থানার সাহাবাজপুরের উমরাপুর এলাকা।
পরে সেখানে বেশ কয়েকটি দোকান ও বাড়িতে ভাঙচুর করে লুটপাট চালানো হয় বলেও অভিযোগ।
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নতুন ও পুরোনো তৃনমূলের এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এই এলাকা। সোমবার সন্ধ্যে থেকে সেখানে শুরু হয় বোমাবাজি। অনেক রাত পর্যন্ত চলে বোমাবাজি। তারপর চলে ভাঙচুর ও লুটপাট। এদিন ওমরাপুর এলাকায় মোট ১১টি বাড়ি ও ৮টি দোকানে লুটপাট চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ। পুলিশের ভূমিকা নিয়েও উঠছে নানান প্রশ্ন । এই ঘটনায় এলাকায় রীতিমত আতঙ্কিত রয়েছেন এলাকার মানুষজন  ।
আদি তৃণমূল ও নয়া তৃণমূল দুই গোষ্ঠীর মধ্যেই এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে বেশ কয়েকদিন থেকে চাপা উত্তেজনা ছিল উমরাপুরে। বিকেল থেকে শুরু হয় বোমাবাজি।
মুর্শিদাবাদ জেলা তৃনমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র অশোক দাস বলেন, তৃনমূলের মধ্যে কোন সংঘর্ষ হয়নি। এলাকার মানুষদের মধ্যে হয়েছে।পুলিশ বিষয়টি দেখছে।
সুতি থানার ওসি বিশ্ববন্ধু চট্টোরাজ বলেন, কংগ্রেস ও তৃনমূলের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। মেনলি সিপিএম ও কংগ্রেসের যে জয়েন্ট ফোরাম আছে তারাই তৃনমূলদের এট্রার্ক করেছিল। ঘটনায় ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এলাকায় তল্লাসি চালিয়ে ১৫০ টি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ পিকেটিং চলছে। এলাকার উপরিস্থিতি এখন থমথমে রয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে,  রাতভর চলে ব্যপক বোমাবাজি । এমনকি সেখানে পুলিশের সামনেই বেশকিছুক্ষণ বোমাবাজি করে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।
আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, রাতভর বোমাবাজি চলে। গোটা এলাকার মানুষ ভয়ে ঘরের বাইরে পা রাখতে পারেনি। বোমাবাজির পর চলে লুটপাট চালানো হয়।

সংগৃহীত ছবি

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here