উলঙ্গ অবস্থায় জানলা দিয়ে ঝাঁপিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে

0
28

পিয়ালী দাস, বীরভূমঃ

হাসপাতালের তিনতলার জানালা দিয়ে উলঙ্গ হয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় এক ব্যক্তিকে দেখে কার্যত স্তব্ধ হয়ে যায় হাসপাতালে উপস্থিত থাকা রোগীর আত্মীয় পরিজনেরা। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। যদিও ঝাঁপ দেবার আগেই ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মীরা উদ্ধার করে।

Suicide | newsfront.co
প্রতীকী চিত্র

হাসপাতাল সূত্রে জানা যাচ্ছে, লাভপুরের বাসিন্দা নিখিল হাজরা কীটনাশক খেয়ে অত্যন্ত গুরুতর অবস্থায় বোলপুরের সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়।

আরও পড়ুনঃ সিটি স্ক্যানের রিপোর্টে দেরি হওয়ায় এনআরএসে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু বৃদ্ধের!

আচমকাই দুপুরবেলায় ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে গিয়ে জামা কাপড় খুলে সম্পূর্ণ উলঙ্গ অবস্থায় জানলা দিয়ে ঝাঁপিয়ে আত্মহত্যা করতে যায়। হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মীরা কোন প্রকারে নিখিল হাজরাকে ধরে ফেলে ফের ওয়ার্ডে নিয়ে আসে।

আরও পড়ুনঃ মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে উধাও রোগী

বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত সুপার বুদ্ধদেব মুর্মু জানিয়েছেন, “অত্যন্ত সংকটজনক অবস্থায় নিখিল হাজরা হাসপাতালে ভর্তি হয়। তারপর তার পেট থেকে কীটনাশক বের করা হয়। তাকে সুস্থ করার জন্য সমস্ত রকম ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছে। আইসিউ তে ভর্তি ছিল। দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছিল। তবে কেন, কিভাবে,সে ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে ফের জানালা দিয়ে ঝাঁপাতে গিয়েছিল তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।”

আপাতত নিখিল হাজড়াকে কড়া নজরদারিতে রাখা হবে। উদ্ধার হওয়ার পর নিখিল হাজড়া জানায়, “স্ত্রীর সাথে ঠিকঠাক বনিবনা হচ্ছিল না বলেই কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করছিল সে।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485