কেতুগ্রামে উদ্ধারনপুর পুরনো শ্মশানেই বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরি দাবিতে সরব হলেন গ্রামবাসীরা ।

0
248

শ্যামল রায় বর্ধমান:
গ্রামবাসীদের দীর্ঘদিনের দাবি তাদের উদধানপুর পুরনো শ্মশান এই বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরি হোক। ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার বৈদ্যুতিক চুল্লির জন্য 25 লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেছে। কিন্তু কাজ কবে হবে এখনও জানা নেই গ্রামবাসীদের। সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে পুরনো শান্তি মালিকাধীন ট্রাস্টিবোর্ডের আন্ডারে রয়েছে
শোনা গিয়েছে মালিকপক্ষ শ্মশানের জমি হস্তান্তর করতে চাইছে না । জমি হস্তান্তর করছে না সরকারকে এই নিয়ে সমস্যায় দাঁড়িয়েছে বলে গ্রামবাসীদের অভিযোগ। তবে মঙ্গলবার গ্রামবাসীরা মালিকের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। মহকুমা শাসকের কাছে লিখিত আবেদন পত্র করে জানিয়েছে যে পুরনো শ্মশান এই বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরি হোক এর জন্য ট্রাস্টি বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করে দ্রুত বাস্তবায়িত করা হোক শ্মশানে সংস্কার ও বৈদ্যুতিক চুল্লি বসানোর কাজ। গ্রামের মানুষ আরো জানতে পেরেছে যে পুরনো শ্মশান থেকে জমি সংক্রান্ত সমস্যায় অন্যকোথাও বৈদ্যুতিক চুল্লি বসিয়ে শ্মশান তৈরি করা হবে এই কথা চাউর হতেই গ্রামবাসীরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন।
মঙ্গলবার উদ্ধারনপুর স্মৃতি রক্ষা কমিটির সম্পাদক অশোক কুমার দাস সভাপতি তারক দাস অভিযোগ করেছেন যে কোন প্রকারেই পুরনো শ্মশান থেকে অন্য কোথাও শ্মশান নিয়ে যাওয়া যাবে না। , কারণ এই পুরনো শ্মশানের একটা ঐতিহ্য রয়েছে শ্মশান ঘিরে প্রচুর দোকান বাজার গড়ে উঠেছে।
‌ ‌ এছাড়াও শ্মশানঘাটে যুক্ত রয়েছেন দুঃখী রাজু রাজেশম সহ অনেকগুলো পরিবার।. তাই অন্যত্র শ্মশানঘাট চলে গেলে এদের কাজ থাকবে না বলেই অভিযোগ গ্রামবাসীদের।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here