দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চলতি টেস্টে শতক হাঁকিয়ে রেকর্ড ঋষভ পন্থের

0
18

শরীয়তুল্লাহ সোহন, ওয়েব ডেস্কঃ

কাগিসো রাবাদার খাটো লেংথ বলে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এলেন ঋষভ পন্থ। এক্সট্রা কাভার দিয়ে বড় শটের চেষ্টা ব্যর্থ হলো, ক্যাচ গেল উইকেটের পেছনে। ৩ বল খেলে শূন্য রানেই ফিরলেন। জোহানেসবার্গে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসে ২ ওভারের ব্যবধানে অজিঙ্কা রাহানে ও চেতেশ্বর পূজারা ফিরেছিলেন। দলের অমন পরিস্থিতিতেও কেন এমন করলেন পন্থ? কারণ, পন্থের খেলার ধরনটাই এমন।

Wicket keeper Rishav Pant
ঋষভ পন্থ

পন্থ অমন করে না খেললে কেপটাউনের আজকের ইনিংসটা দেখা হতো না। পন্থ অমন না করলে ব্রিসবেন দেখা যেত না, আহমেদাবাদ আসত না। ইতিহাসের জন্ম হতো না।

কেপটাউনে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে ক্যারিয়ারের চতুর্থ শতকটা করেছেন আজ পন্থ। যেখানে ভারতের কোনো উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে এর আগে ৯০ রানের বেশি করতে পারেননি। সেখানে পন্থ ছয় নম্বরে নেমে ১০০ রান করলেন, তাঁকে শেষ পর্যন্ত আউট করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকার বোলাররা। পন্থের হার না মানা শতকের পরও ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে গেছে ১৯৮ রানে—তাঁর ইনিংসের মাহাত্ম্য বলে দেয় বোধ হয় এটিই।

ভারতীয় দলের দ্বিতীয় ইনিংসে পন্তের পর অন্য ব্যাটারদের সর্বোচ্চ ইনিংসটা ২৯ রানের। সেটি করেছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। যেখানে ২৯ রান করতে অধিনায়ক কোহলি খেলেছেন ১৪৩ বল, সেখানে ঋষভ পন্থ ১০০ রান করেছেন মাত্র ১৩৯ বলে।

আজ যখন ক্রিজে নেমেছেন পন্থ, ৫৮ রানে চতুর্থ উইকেট হারিয়েছে ভারত, পরপর দুই ওভারে ফিরেছেন অজিঙ্কা রাহানে ও চেতেশ্বর পূজারা। মুখোমুখি হওয়া সপ্তম বলে প্রথম স্কোরিং শটটা খেলেছেন পন্থ- রাবাদাকে পুল করে চার মেরে। সেই রাবাদা, যার বলে জোহানেসবার্গে আউট হয়েছিলেন তিনি।

কোহলির সঙ্গে পঞ্চম উইকেটে যোগ করেছেন ৯৪ রান। সে জুটিতে কোহলির অবদান ১৫ রান, ৭১ রানই করেছেন পন্থ। ভারতের টেল-এন্ডাররা সেভাবে সমর্থন দিতে পারেননি পন্থকে, স্বীকৃত ব্যাটসম্যানরাই তো এ উইকেটে হাবুডুবু খেয়েছেন।

পন্থ ঠিকই পেয়েছেন শতক। অর্ধশতক পূর্ণ করার সময় স্কয়ারের সামনে থেকেই নিয়েছিলেন ৩৯ রান। বরাবরের মতোই চড়াও হয়েছেন বোলারদের ওপর। কেশব মহারাজকে টানা দুই ছয় মেরেছেন, মার্কো ইয়ানসেনের বলে চেষ্টা করেছেন রিভার্স স্কুপের। ডুয়ান অলিভিয়েরকে ডিপ পয়েন্টের ওপর দিয়ে খেলেছিলেন একবার, বল সেদিকে গেলেও ব্যাট গিয়েছিল ফাইন লেগের দিকে!

পন্থ দমেননি তাতেও। ৫৮ বলে অর্ধশতকের পর ১৩৩ বলে পূর্ণ করেছেন শতক। ভারত, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকা- এ চার দেশেই স্বীকৃত উইকেটকিপার হিসেবে ১০০ করলেন তিনি। বাকি থাকল শুধু নিউজিল্যান্ড। ইতিহাসে এমন কীর্তি আছে আর একজনেরই- অ্যাডাম গিলক্রিস্ট।

আরও পড়ুনঃ আইপিএলের স্পনসর থেকে সরে দাঁড়াল ভিভো, নতুন দায়িত্বে দেশীয় সংস্থা টাটা

শেষ পর্যন্ত মার্কো ইয়ানসেনের বলে যশপ্রীত বুমরা ক্যাচ তুললে থামতে হয়েছে পন্তকে। ফলে ম্যাচে ভারতের ২০টি উইকেটই এসেছে ক্যাচ দিয়ে- ইতিহাসে এমন ঘটেনি এর আগে। দলের ১৯৮ রানের ৫০.৫০ শতাংশ রানই এসেছে পন্থের ব্যাট থেকে। শতকের পর দলের ৫০ শতাংশের বেশি রান করেছেন দেশের বাইরে, ভারত ব্যাটসম্যানদের মধ্যে পন্তের আগে এ কীর্তি আছে চারজনের- ভিভিএস লক্ষণ (সিডনি), বীরেন্দর শেওয়াগ (গল), কপিল দেব (পোর্ট এলিজাবেথ) ও শচীন টেন্ডুলকারের (বার্মিংহাম)। দলের রান ২০০-এর নিচে, কিন্তু কোনো ভারতীয় ব্যাটসম্যান শতক করেছেন- এমন ঘটনাও এটিই প্রথম।

প্রথম ইনিংসের লিড ধরে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২১২ রানের লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছেন কোহলিরা। জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা ব্যাট করতে নেমে তৃতীয় দিন শেষে ২ উইকেটের বিনিময়ে ১০১ রান সংগ্রহ করেছেন। কেপটাউনে ২০০-এর ওপর রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড আছে তিনটি, যার সর্বশেষটি এসেছিল ২০১১ সালে। দক্ষিণ আফ্রিকা হয়ত এ ম্যাচেও জিততেই পারে, তবে কেপটাউনে পন্তের এ ইনিংসটা যে স্মরণীয় হয়ে থাকবে- সেটা নিয়ে সন্দেহ নেই নিশ্চয়ই।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here