যুদ্ধ পরিস্থিতিকে কাজে লাগিয়েও সম্ভব দেশের অর্থনীতির উন্নতি, উপায় বাতলে দিলেন মনমোহন সিং

0
82

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতিকে যদি সঠিক ভাবে ভারত কাজে লাগাতে পারে আমদানি-রপ্তানি বিষয়ে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে উন্নতি করার সুযোগ অনেকটাই, এক প্রতিবেদনে এমনই লিখলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ মনমোহন সিং। তিনি লিখেছেন, এই যুদ্ধের পরিস্থিতিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। স্বাভাবিকভাবেই চিন এবং রাশিয়ার প্রতি নির্ভরতা কমবে অন্যান্য দেশের। এই সময় বিকল্প হিসেবে গড়ে উঠতে পারে ভারত।

india can use the opportunity of the war scenario
প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. মনমোহন সিং , ছবিঃ হিন্দুস্থান টাইমস

ভারত কিভাবে এই পরিস্থিতির সদ্ব্যবহার করতে পারে সে দিশাও দিয়েছেন মনমোহন। তিনি লিখেছেন, ভারতের উচিত বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ তৈরি করা। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে নিজেদের নিরপেক্ষ অবস্থানকে কাজে লাগিয়ে যুদ্ধরত উভয় পক্ষের সঙ্গেই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারে ভারত।  নিরপেক্ষ বৈদেশিক নীতিকে কাজে লাগিয়ে এভাবে বাণিজ্যক্ষেত্রে নিজেদের জায়গা সুদৃঢ করা সম্ভব ভারতের পক্ষে। উল্লেখ্য, মনমোহন সিং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ব্যক্তিগতভাবে নিজের সহমর্মিতাও প্রকাশ করেছেন নিজের প্রতিবেদনে।

আরও পড়ুনঃ খারগোনে রাম নবমীর হিংসায় মৃত ইব্রিশ খানের হত্যার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৫

প্রতিবেদনে মনমোহন লিখেছেন, বিশ্বজুড়ে মূল্যবৃদ্ধির হার ঊর্ধ্বমুখী। অপরিশোধিত তেলের দাম বেড়েই চলেছে। এই পরিস্থিতিতে অনিশ্চয়তা বাড়ছে বিশ্বজুড়ে। এই কারণেই যুদ্ধের ফলে পরিবর্তিত  রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতিকে কাজে লাগাতে পারে ভারত। মনমোহন সিং লিখেছেন, এই অবস্থায় কোভিডের কারণে প্রায় ধসে যাওয়া দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার সুযোগ রয়েছে ভারতের সামনে। পাশাপাশি এইভাবে দেশের যুব সমাজের জন্য প্রচুর কর্মসংস্থানেরও সুযোগ হতে পারে বলে লিখেছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অর্থনীতিবিদ।

আরও পড়ুনঃ বজায় রাখতে হবে স্থিতাবস্থা, কোর্টের নির্দেশের পরেও উচ্ছেদ! কড়া ব্যবস্থার ইঙ্গিত শীর্ষ আদালতের

এছাড়াও আরেকটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোকপাত করেছেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। তিনি লিখেছেন, ভারতের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতির দিকেও নজর রাখা বিশেষ প্রয়োজন। তিনি লিখেছেন, ”বাণিজ্যের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করতে গেলে দেশে শান্তির পরিবেশ বজায় রাখতে হবে।”অত্যন্ত স্পষ্ট ভাষায় মনমোহন লিখেছেন, ”দেশে প্রায় দশ লক্ষ কারখানা তৈরি করার দরকার। সেখানে কাজ করার জন্য অন্তত দশ কোটি কর্মীর প্রয়োজন। যদি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় না থাকে, তা হলে এই বিপুল সংখ্যক মানুষ একসঙ্গে কাজ করবেন কিভাবে! স্বাভাবিকভাবেই থমকে যাবে দেশের উন্নতি।“

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here