‘সংখ্যালঘু বিরোধী’ ভাবমূর্তি বিশ্ব বাজারে ভারতের পক্ষে ক্ষতিকারক, সতর্কবার্তা রাজনের

0
70

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

‘সংখ্যালঘু বিরোধী’ ভাবমুর্তি হয়ে উঠতে পারে দেশীয় পণ্যের বাজারের পক্ষে ক্ষতিকারক হয়ে উঠতে পারে, অর্থনীতি বিষয়ক এক সম্মেলনে এমনই সতর্কবার্তা দিলেন রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার প্রাক্তন গভর্নর রঘুরাম রাজন।  ভারতকে বহু দেশই এর পরে ভরসাযোগ্য অংশীদার হিসেবে না-ও ভাবতে পারে। এই প্রসঙ্গে রাজন চিনের উদাহরণও সামনে আনেন। রাজন মনে করিয়ে দিয়েছেন উইঘুর মুসলিমদের প্রতি ও তিব্বতীদের প্রতি চিনের আগ্রাসনের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সে দেশের ভাবমূর্তিও।

raghuram rajan analysis
গ্রাফিক্সঃ স্ক্রল.ইন

সম্প্রতি দিল্লির জাহাঙ্গিরপুরীর হিংসার পরিপ্রেক্ষিতে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় সেখানকার বাড়ি, ঘর, দোকান। এই ঘটনা শুধু দেশের নয় সারা বিশ্বের সংবাদ মাধ্যমে উঠে এসেছে। এর আগেও বহুবার সাম্প্রদায়িক শান্তির পরিবেশ বিঘ্নিত হয়েছে দেশে।তারপরেই এমন কথা বলতে শোনা গেল রঘুরাম রাজন-কে। তিনি বলেন,  ”যদি আমরা এমন গনতান্ত্রিক দেশ হতে পারি, যেখানে সমস্ত নাগরিক সসম্মানে থাকেন, সেদেশের উৎপাদিত পণ্য কিনতে আগ্রহী হন ক্রেতারাও।তাঁরা মনে করেন, আমরা এমন দেশের পণ্য  কিনছি যারা প্রকৃতই ভাল কাজ করার চেষ্টা করছে আর এই ভাবেই বৃদ্ধি পায় বাজার।

আরও পড়ুনঃ যুদ্ধ পরিস্থিতিকে কাজে লাগিয়েও সম্ভব দেশের অর্থনীতির উন্নতি, উপায় বাতলে দিলেন মনমোহন সিং

পাশাপাশি রাজন এও বলেন যে, একই সঙ্গে  আন্তর্জাতিক সম্পর্ক একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।  যেকোন দেশের সরকার সিদ্ধান্ত নেয় অন্য কোন দেশ ভরসাযোগ্য অংশীদার হতে পারে বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে। রঘুরাম তাঁর বক্তব্যে বলেন, গণতান্ত্রিক বিশ্ব ঠিক এই ভাবধারাতেই বিশ্বাস করে।  ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট  ভ্লাদিমির জেলেনস্কির উদাহরণ দিয়ে রাজন বলেন যে,  লড়াকু মানসিকতার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সমর্থন পাচ্ছেন তিনি।  আরও একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উঠে এসেছে রাজনের বক্তব্যে। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন, ইডি কিংবা সিবিআইয়ের মতো সাংবিধানিক ও নিরপেক্ষ সংস্থাগুলির  অবমূল্যায়ন দেশের গণতান্ত্রিক চরিত্রকে নষ্ট করে দেয়।

 

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here