বিজ্ঞান কর্মশালা অনুষ্ঠিত হল তালিবপুরে

0
20

কবির হোসেন, মুর্শিদাবাদঃ

কাজের আকাল গোটা দেশে, রাজ্যেও। বিশেষ করে চাকরির ক্ষেত্রে। একের পর এক সরকারি সংস্থা বিক্রি হলে চাকরির সমস্যা তো তৈরী হবেই। রাজ্যের বহু মানুষ কিছু উপার্জন করছিলেন ভিন্ রাজ্যে গিয়ে। করোনাকালে সে রাস্তাও প্রায় বন্ধ। আমাদের এলাকার প্রচুর মানুষকে এই সময় অন্যের কাছে আর্থিক ঋণ নিতে দেখেছি। যারা সাধারণত ঋণকে ভয় পান তারাও। সরকারি চাকুরীর আশায় বহু মেধাবী ছাত্র ছাত্রীরা মূল্যবান সময় অতিবাহিত করছে যা খুব জটিল পরিস্থিতি তৈরী ও সাবলম্বী হতে অন্তরায় সৃষ্টি করছে।

Training camp
নিজস্ব চিত্র

করোনা একদিকে যেমন ট্রেনের লাইনে পরে থাকা গোটা কয়েক রুটির ছবি দেখায়, তেমনি দেখায় বিত্তবান দের সম্পত্তি বেড়ে যাওয়ার গতি। আমাদের এলাকার মানুষের আজ বড় অংশ কর্মহীন হয়ে পরেছেন। আর এমনিতেই মেয়েদের আর্থিক পরিস্থিতি ভীষণ খারাপ। তাই এলাকার মানুষের স্বার্থে বিজ্ঞান মঞ্চ, সালার প্রস্তুতি কেন্দ্র একটা ছোট পদক্ষেপ নিয়েছে আজ। যেখানে হাতে কলমে আজ শেখানো হল ডিটারজেন্ট এবং ফিনাইল তৈরি করা। প্রশিক্ষণ দিলেন বিজ্ঞান মঞ্চের টেকনোলজি ট্রান্সফার সাব কমিটির রাজ্যের কনভেনর আশুতোষ পাল এবং দীপক দত্ত উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান মঞ্চের মুর্শিদাবাদ জেলার সভাপতি তপন সামন্ত এবং জেলার অন্যতম সহ সম্পাদক মাননীয় ড. পঙ্কজ মন্ডল। স্যানিটাইজার কিভাবে তৈরি করা যাবে।

training centre
নিজস্ব চিত্র

শুধু তৈরি করা দেখানোর মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকেনি বিজ্ঞান মঞ্চ। কিভাবে সেগুলো নিয়ে নিজস্ব ব্যবসা করা যায়, কোথা থেকে কাঁচামাল সস্তায় পাওয়া যায়.. সে সবই প্রশিক্ষণের অংশ ছিল । যার জন্য কোনরকম ভেজাল না মিশিয়ে বাজারের থেকে প্রায় অর্ধেক দামে বিক্রি করেও লাভ করা যায়। এখানেই বিজ্ঞান মঞ্চের স্বার্থকতা। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রয়োগকে জনসাধারণের মধ্যে বিস্তার করা। সেক্ষেত্রে মঙ্গলবারের কর্মশালা অনেকটাই সফল। সালার থানার অন্তর্গত তালিবপুর গ্রামে বিজ্ঞান কর্মশালার আয়োজন করা হয় ।মোট ৬৭ জন অংশ গ্রহণ করেছিলেন। যার মধ্যে বেশ কয়েক এসেছিলেন লালগোলা, সাইথিয়া এবং নানুর থেকে।

Camping
নিজস্ব চিত্র

আরও পড়ুনঃ জলঙ্গীতে বিনামূল্যে চিকিৎসা শিবির

শুরুতেই আশুতোষ পাল বলেন, “করোনার প্রথম ঢেউ যখন আসে, বাজারে স্যানিটাইজার অলীক বস্তু হয়ে ওঠে। আসলে সেই সময় স্যানিটাইজার তৈরির কাঁচামাল প্রায় বেশিরভাগ টাই নিজের গোডাউনে তুলে নেন বড় বড় কোম্পানি। আর সাধারণ মানুষের জন্যে বাজার শুন্য। সেই কঠিন পরিস্থিতিতে যখন এই সমস্ত কর্পোরেট দল বেশি দামে স্যানিটাইজার বিক্রি করে জনগণকে লুট করেছে, ঠিক সেই সময় বিজ্ঞান মঞ্চ রাজ্য জুড়ে মানুষের জন্য সস্তায় স্যানিটাইজার তৈরী করে দিয়েছে।” জেলা সভাপতি তপন সামন্ত বলেন, “বিজ্ঞান মঞ্চ, সালার প্রস্তুতি কেন্দ্র এলাকার মানুষের জন্য কাজ করে চলেছে। প্রয়োজনে তারা অক্সিজেনও মানুষের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে। ব্লাড ব্যাংকে রক্তের যখন আকাল, এরা রক্তদান শিবির করেছে।”

আরও পড়ুনঃ রনগ্রাম ব্রিজ পুনঃনির্মাণের দাবিতে নাগরিক সমাবেশ

মঙ্গলবার প্রশিক্ষণ শিবির শেষে তালিবপুরের বিজ্ঞান কর্মীদের নিয়ে একটি বিজ্ঞান চক্র করা হল। উক্ত বিজ্ঞান চক্রের ১৩ জনের কমিটি এবং সভাপতি হিসেবে খোকন খান, সম্পাদক মুকুলুদ্দিন আনসারি, সহ সভাপতি শাহ মামুন, সহ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন এবং কোষাধক্ষ্য আশরাফুল আনসারির নাম প্রস্তাব করেন জেলার অন্যতম সহ সম্পাদক মাননীয় ড. পঙ্কজ মন্ডল। সকলের সম্মতিতে নব গঠিত এই বিজ্ঞান চক্র আগামী দিনে এলাকায় বিজ্ঞান মনস্কতা প্রসারে কাজ করবে। নবগঠিত এই বিজ্ঞান চক্রকে অভিনন্দন জানান সালার বিজ্ঞান কেন্দ্রের কনভেনর সুদিন চ্যাটার্জী, সহকারী কনভেনর পার্থ প্রতিম সরকার এবং বিজ্ঞান আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত বিলকিস ফারহা এবং ড. জাভেদ ইকবাল।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here