কর্মরত স্কুল শিক্ষকদের চাপে আন্দোলনে পড়ুয়ারা,দাবি গৃহশিক্ষকদের

0
125

পিয়া গুপ্তা,উত্তর দিনাজপুরঃ

Students demand school teacher as home tutor
নিজস্ব চিত্র

স্কুল শিক্ষকদের কাছে টিউশন পড়ার দাবিতে এবারে পালটা আন্দোলনে ছাত্রছাত্রীরা।সোমবার দুপুরে মাধ্যমিক ও উচ্চ মধ্যমিক স্তরের একগুচ্ছ ছাত্রছাত্রী উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ বিডিও অফিসে ডেপুটেশন প্রদান সহ শহরের রাস্তায় মিছিল করে স্কুল শিক্ষক দের কাছে পড়ার দাবিতে সোচ্চার হন।পুলিশের আগাম তৎপরতায় পড়ুয়াদের আন্দোলন মাঝ পথে ভেস্তে যায়।

Students demand school teacher as home tutor
নিজস্ব চিত্র

জানা যায়,পুরো জেলা জুড়ে স্কুল শিক্ষকরা বেশ কিছুদিন ধরেই বেআইনি ভাবে সরকারী শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশনি পড়ানোর ব্যাপারে আন্দোলন দেখায়।জেলার পাশাপাশি কালিয়াগঞ্জেও গৃহশিক্ষকরা একত্রিত হয়ে যেসব সরকারী শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশনি পড়াচ্ছেন তাদের নাম নথিভুক্ত করে সপ্তাহ খানিক আগে এসআই অফিসে ডেপুটেশন দেন।এই ঘটনার ঠিক এক সপ্তাহ পর কালিয়াগঞ্জের কিছু ছাত্র ছাত্রী স্কুল শিক্ষকদের কাছে টিউশন পড়ার দাবিতে পালটা আন্দোলন দেখায়।

ছাত্রছাত্রীরা তাদের দাবি নিয়ে পুরসভার পুরপ্রধানের সাথে দেখা করে তাদের অভিযোগ জানায়।তবে এই ছাত্র ছাত্রীদের গৃহশিক্ষকদের বিরুদ্ধে এই ধরনের আন্দোলন কেন এই ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে তারা সর্ব সম্মুখে কিছু না জানালেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু ছাত্র ও তাদের অভিভাবক রা জানায় কিছু স্কুল শিক্ষকদের প্ররোচনায় তারা এই কাজ করতে বাধ্য হযেছে।তাদের অনেকের বক্তব্য স্কুল শিক্ষক দের কথা অনুযায়ী আমরা এই আন্দোলন করতে বাধ্য হযেছি।স্কুল শিক্ষকদের কথা না মানলে আমরা প্রাকটিক্যাল পরীক্ষার তিরিশটা নম্বর পাবো না।যদিও শিক্ষকদের চাপেই ছাত্র ছাত্রীদের এই কর্মকান্ড এই ব্যাপার সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে স্কুল শিক্ষকরা।

ছাত্র ছাত্রীদের আন্দোলনের ব্যাপারে গৃহশিক্ষক তাপস ভট্টাচার্য বলেন,সম্পূর্ণ শিক্ষকদের মদতে ছাত্র ছাত্রীরা আন্দোলনে নামছে।
তাদের এই আন্দোলনের কোন যুক্তিই নেই।কারন সরকারি শিক্ষকদের গৃহ শিক্ষকতা সম্পূর্ণ বেআইনি।
শুধুমাত্র কয়েকটা নম্বর পাইয়ে দেওয়ার লালসায় ছাত্র ছাত্রীরা আন্দোলনে নামতে বাধ্য হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ মনিকা মাহাতো হত্যার বিচার চেয়ে আন্দোলনে কুড়মি সমাজ

তাপস বাবু বলেন,ছাত্র ছাত্রীরা যুক্তি দিচ্ছে যে
শিক্ষাবর্ষের মাঝে হঠাৎ করে স্কুল শিক্ষকদের টিউশন বন্ধ হয়ে গেলে সমস্যায় পড়বে তারা।কিন্তু এই ধরনের কথার কোন তাৎপর্য ই হয় না।কারণ স্কুল শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা করা যে বেআইনি তা শিক্ষকরা ভালো ভাবেই জানেন তার পরেও তারা প্রথম থেকে কেন গৃহশিক্ষকতার কাজের সাথে যুক্ত।এখন চাপে পরে কিছু কিছু শিক্ষকরা ছাত্র ছাত্রীদের ভয় দেখিয়ে আন্দোলনের পথে নামাচ্ছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485