লক্ষ্মীর ভান্ডারের ফর্ম জমা নিচ্ছেন স্বয়ং দেবী লক্ষ্মী!

0
27

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

করোনার ঢেউ সরে যেতেই সামান্য স্বাভাবিক হয়েছে জনজীবন। তাই রাজ্যজুড়ে ফের শুরু হয়েছে ‘দুয়ারে সরকার’ ক্যাম্প। এবার রাজ্য সরকারের ‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ প্রকল্প দুয়ার সরকারে নতুন সংযোজন হয়েছে। তাই দুয়ারে সরকার শিবিরে দ্বিগুণ বেড়েছে ভিড়। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি ক্যাম্পে পদপিষ্ট হওয়ারও খবর পাওয়া গেছে। তারপর ‘দুয়ারে সরকার’ ক্যাম্পে যাতে বেশি ভিড় না হয় তার জন্য অন্য ব্যবস্থা করেছে নবান্ন। এরপর থেকে এখনও পর্যন্ত সষ্ঠু ভাবেই চলছে দুয়ারে সরকারের কাজ। এরই মধ্যে সল্টলেকের দত্তাবাদ এলাকায় দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে ধরা পড়ল এক অভিনব ছবি।

Lakshmir Bhandar
ছবি: সংগৃহীত

সোমবার থেকে সল্টলেকে দত্তাবাদ এলাকায় দুয়ারে সরকার শিবিরে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে ফর্ম জমা নেওয়া চলছে। সেই ফর্ম জমা নেওয়ারই এক অভিনব ছবি দেখা গেল বিধাননগর পুর নিগমের ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে। সেখানে দেখা গেল এক মহিলা দেবী লক্ষ্মী সেজে সিংহাসনে বসে রয়েছেন। লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা মহিলারা ফর্ম পূরণ করে সেই ‘মর্ত্যের লক্ষ্মী’র হাতে তুলে দিচ্ছেন ফর্ম। মা লক্ষ্মী আশীর্বাদ দিয়ে সেই প্রকল্পের ফর্ম জমা নিচ্ছেন। এবং পাশে থাকা স্বেচ্ছা সেবকদের হাতে তা তুলে দিচ্ছেন তিনি। এই দৃশ্য ফর্ম জমা দিতে আসা মহিলাদের মন কেড়েছে।

আরও পড়ুনঃ মমতাকে রেড কার্পেটে অসমে স্বাগত জানাচ্ছেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা, লাভ নাকি বিজেপির!

জানা গিয়েছে, বিধাননগর পুরনিগমের ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডের কো-অর্ডিনেটর নির্মল দত্তের পরিকল্পনা মতোই ওই মহিলাকে লক্ষ্মীর সাজে বসানো হয়েছে। নির্মল দত্তের কথায়, রাজ্যজুড়ে তৃণমূল সরকার ঘরের লক্ষ্মীদের জন্য লক্ষ্মী ভাণ্ডার প্রকল্পের ঘোষণা করেছে। সর্বত্র ফর্ম দেওয়া হচ্ছে। এই প্রকল্পকে আরেকটু সাজিয়ে তুলতে এখানে মা লক্ষ্মী স্বয়ং এসেছেন। তিনিই ফর্ম জমা নিচ্ছেন। মঙ্গলবার দত্তাবাদের এই ক্যাম্পের দ্বিতীয় দিনেও এই লক্ষ্মীকে দেখতে ভিড় জমিয়েছিলেন অনেকেই।

আরও পড়ুনঃ বিশ্বভারতী আন্দোলনের পঞ্চম দিন, কর্তৃপক্ষের নোটিসে বন্ধ ফল প্রকাশ

গোটা রাজ্যে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প নিয়ে চলছে ‘দুয়ারে সরকার’। কিন্তু, এই শিবিরে লক্ষ্মীর ভান্ডারকেই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা অনুসারে, এই প্রকল্পের মাধ্যমে তপসিলি ও আদিবাসী মহিলাদের মাসে ১০০০ টাকা এবং জেনারেল ক্যাটাগরির মহিলাদের মাসে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে। তবে এই লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের সুবিধা পেতে গেলে থাকতে হবে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড, আধার কার্ড এবং অন্য জাতিভুক্ত হলে সেই জাতির শংসাপত্র।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here