ভোটাধিকার প্রয়োগের কৌশল শিখে আপ্লুত বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ভোটাররা

0
404

তপন চক্রবর্তী,উত্তর দিনাজপুরঃ

teaching the new Strategy of election
নিজস্ব চিত্র

আর পাঁচজনের মতই ওরাও বাঁচতে চায়।ওরাও নিজেদের অধিকার আর পাঁচজনের মতো ষোল আনাই বুঝে নিতে চায়।ওরাও চায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনে তারাও ভোটদানে অংশগ্রহণ করুক আর পাঁচজনের মতো করে। হ্যাঁ এরা আর কেউ নয় এরা উত্তর দিনাজপুর জেলার কর্ণজোড়ায় অবস্থিত মূক ও বধিরদের আবাসিক বিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধী ছাত্র ছাত্রীরা।

teaching the new Strategy of election
নিজস্ব চিত্র

এরা এবার কেউ কেউ নতুন ভোটার হয়েছেন। তাই ওরা এবার লোকসভা নির্বাচনে প্রথমবার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবে জেনে আনন্দে উচ্ছাসে রয়েছে তারা।এরই মাঝে তাদের উৎসাহ ও উদ্দীপনাকে আরও দশগুণ বাড়িয়ে দিতে ভারতের নির্বাচন কমিশনের উদ্যোগে উত্তর দিনাজপুর জেলার নির্বাচনী দপ্তর এবার সরাসরি চলে এলো তাদের কাছে।

আরও পড়ুনঃ অনাবাসী ভারতীয়দের ‘ই-ভোটিং’ প্রসঙ্গে ‘ফেক নিউজ’, তদন্ত করে দেখতে বললো নির্বাচন কমিশন

teaching the new Strategy of election
নিজস্ব চিত্র

ফলে তাদের উৎসাহের কোন যে ঘাটতি ছিল না তা তাদের দেখলেই বোঝা যায়।তারা নিবাচনী আধিকারিকদের কাছ থেকে ইভিএম মেশিন ও ভিভিপ্যাট এ কি ভাবে ভোট দিতে হয় তা হতে কলমে বুঝে নিলেন।এদিকে লোকসভা নির্বাচনে জেলায় তাদের মতো বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ভোটাররা ও যাতে সুষ্ঠুভাবে তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে পারে সেই জন্য উত্তর দিনাজপুর জেলায় প্রতিবন্ধী ভোটার সপ্তাহ পালন করা হচ্ছে।এই আবাসিক বিদ্যালয়ের পাশাপাশি জেলার প্রতিটি এলাকায় জেলা প্রশাসনের একটি করে দল পৌঁছে যাচ্ছে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ভোটারদের ভোট দেওয়ার পদ্ধতি সম্পর্কে হাতে কলমে শেখাতে জেলা নির্বাচনী দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়ে ।

teaching the new Strategy of election
নিজস্ব চিত্র

আর তাদের তালিম দেওয়া হল ইভিএম ও ভিভিপ্যাট সম্পর্কে তাদের পুঙ্খানুপুঙ্খ। পরবর্তীতে সেখানে তাদের ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করা হলো।যাতে নির্বাচনের দিন তারা ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের গিয়ে নিজেদের ভোট সঠিকভাবে দিতে পারেন।জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে গত ১৪ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত জেলার প্রতিবন্ধী ও মহিলা ভোটার সপ্তাহ পালন করা হচ্ছে জেলার নয়টি ব্লকেই।

প্রতিটি জায়গায় তাদের জন্য এমন শিবির করা হচ্ছে।এদিকে সূর্যোদয় মূক ও বধির আবাসিক বিদ্যালয় বিশেষ এই প্রশিক্ষণ শিবিরে যখন তাদের হাতে কলমে দেখানো হচ্ছিল তখন তাদের দেখা যায় একটু অন্যরকম।এই হোমের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ভোটারদের মধ্যে মহিলাদের উপস্থিতিও চোখে পড়ার মতো।এদিন আলাদা করে ইভিএম ও ভিভি প্যাট মেশিনের ব্যবহার শেখানো হয়।

এক্ষেত্রে যারা পুরনো ভোটার তাদের শুধুমাত্র ইভিএম মেশিন ও যারা নতুন ভোটার তাদের ক্ষেত্রে দুটো মেশিনে কিভাবে এবারের লোকসভা নির্বাচনে তারা ভোট দিতে পারবে সে ব্যাপারে বোঝানো হয়।এদিন সূর্যোদয় মূক ও বধির আবাসিক এ যখন এই শিবির হচ্ছিল তখন উপস্থিত ছিলেন ডিস্ট্রিক্ট সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার অফিসার অচিন্ত্য কুমার মন্ডল এবং জেলার ডিপিআরডিও তথা ওসি ইলেকশন অতনু কুমার মন্ডল।তারা উভয়েই জানান এই ধরনের প্রশিক্ষণ শিবিরে যেভাবে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন নতুন ভোটাররা উৎসাহিত হয়েছেন তাতে তাদের শারীরিক অভিব্যক্তি থেকেই পরিষ্কার বোঝা গেছে।

এদিন বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন এক নতুন ভোটার আকার-ইঙ্গিতে জানালেন যে সে এবার নতুন ভোট দেবে।তাই তার এব্যাপারে একটা নতুন উদ্দীপনা তৈরী হয়েছে। অপরদিকে উত্তর দিনাজপুর জেলার জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মিনা জানান, ভারতের নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে উত্তর দিনাজপুর জেলার নির্বাচনী দপ্তরের তৎপরতায় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন নতুন ভোটার এবং পুরনো ভোটারদের সচেতনতা করার জন্য এবং ইভিএম ও ভিভি প্যাট সঙ্গে তাদের পরিচিতি ঘটানোর জন্য জেলা জুড়ে তারা এই অভিযান শুরু করেছে।

প্রত্যেকটি বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ভোটারদের কাছে জেলা নির্বাচনী দপ্তর ইভিএম মেশিন ও ভিভি প্যাট নিয়ে পৌঁছে যাচ্ছে।ফলে এই লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এখন জমে উঠেছে নির্বাচনী দপ্তরের তৎপরতা উত্তর দিনাজপুর জেলায়।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here