শিশুকে যৌন নির্যাতনের অপরাধে দশ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড অভিযুক্তদের

0
28

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

পাঁচ বছরের এক শিশুকন্যাকে যৌন নির্যাতনের অপরাধে দুই যুবককে দশ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিল আদালত। বৃহস্পতিবার মেদিনীপুরের পকসো আদালতের বিচারক নবনীতা রায় ওই সাজা ঘোষণা করেছেন। ঘটনাটি কেশপুরের জবারডাঙা গ্রামের।

ten years of imprisonment for Child sexual abuse
ছবিঃ প্রতীকী

বিশেষ সরকারী আইনজীবি গৌতম মল্লিক জানিয়েছেন, ওই গ্রামে ৫ বছরের নাবালিকা মেয়ের উপর দিনের পর দিন যৌন নির্যাতন চালিয়ে গিয়েছে গ্রামেরই দুই যুবক বিভাস মেট্যা ও স্বদেশ ভুঁইয়্যা। গতবছরের ১৫ এপ্রিল নিগৃহীত শিশুর বাবা কেশপুর থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন, ঘটনার সময়কালে তিনি তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে ডেবরায় শ্বশুরবাড়িতে রেখে এসেছিলেন। জবারডাঙার বাড়িতে তিনি তার পাঁচ বছরের মেয়েকে নিয়েই থাকতেন। একদিন তার মেয়ে পেটে ব্যাথা অনুভব করে। তাকে সঙ্গে করে শ্বশুরবাড়িতে গেলে সে তার মায়ের কাছে পুরো ঘটনা জানায় যে, কিভাবে সাতদিন ধরে বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগ নিয়ে বিভাস ও স্বদেশ বাড়িতে এসে চকলেট দেওয়ার নাম করে যৌন নির্যাতন করে গিয়েছে। কাউকে বললে প্রানে মেরে ফেলারও হুমকি দিয়ে যায়।

বিশেষ সরকারী আইনজীবি গৌতমবাবু জানিয়েছেন, নিগৃহীত শিশুর বাবার অভিযোগক্রমে গ্রেফতার হওয়ার পর পকসো আইনে দুই আসামীর বিরুদ্ধে চার্জ গঠন হয়। মেয়েটির মা, বাবা সহ ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহনের ভিত্তিতে বিচারক ওই দুই আসামীকে পকসো আইনের ৮ ধারায় এবং ভারতীয় দণ্ডবিধি আইনের ৩৫৪ বি ধারায় দোষী সাব্যস্ত করেন।

এদিন ওই দুই আসামীকে ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা করে জরিমানাও ধার্য্য করা হয়েছে। জরিমানার টাকা অনাদায়ে আরও ২ মাস কারাদণ্ডেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে যৌন নির্যাতনের শিকার ওই নাবালিকাকে সরকারী উদ্যোগে ক্ষতিপূরন দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485