হুইপ না মেনে বাম-বিজেপি জোটে শোরগোল রাজনৈতিক মহলে

0
16

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

গত বছরই গেরুয়া ঝড়ে ত্রিপুরায় ভেঙে পড়েছিল লাল দুর্গ। বছর ঘুরতেই মুখ্য বিরোধী বিজেপির সঙ্গে হাত মেলাল সিপিএম। রাজনৈতিক সম্পর্কের এমন জোট ঘিরে শোরগোল পড়েছে ত্রিপুরার উনাকোটি জেলার শ্রীনাথপুর গ্রাম পঞ্চায়েত। বিজেপির সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে এই পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন করেছে সিপিএম।

the conflict between cpm and bjp | newsfront.co
চিত্র সৌজন্যঃ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

ওই পঞ্চায়েতের প্রধান পদে দায়িত্ব নিয়েছেন সিপিএমের টিকিট জয়ী তাকুম আলি। উপপ্রধান পদে বসেছেন বিজেপির সিরাজ মিয়া– সূত্রের খবর।

এ প্রসঙ্গে তাকুম আলি বলেন, ‘‘পঞ্চায়েত চালানোর জন্য সাময়িক সময়ের কথা ভেবে বিজেপির নির্বাচিত প্রতিনিধির সঙ্গে একজোট হয়েছি’’। আমি এখনও একজন সিপিএম সদস্য। দলের নেতৃত্বের থেকে কোনও হুইপ পাইনি’’।

আরও পড়ুনঃ শো-কজ বিজ্ঞপ্তির পরে ভোটের ডিউটিতে রাজি শিক্ষকরা

একটি জাতীয় গণমাধ্যমকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে উনাকোটি জেলার সিপিএমের সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু চৌধুরী বলেন, বিজেপির সঙ্গে জোট করে যাঁরা বোর্ড গঠন করেছেন, তাঁরা দলের হুইপ মানেননি।

তিনি আরও বলেন, ‘‘সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় শ্রীনাথপুরে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। হুইপ জারি করা হয়েছিল। কিন্তু ৪ জন হুইপ না মেনেই বিজেপির সঙ্গে একজোট হয়ে বোর্ড গঠন করেছে। ওঁদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে। বিজেপির সঙ্গে জোট বাঁধার কোনও প্রশ্নই নেই’’।

এ প্রসঙ্গে বিজেপি মুখপাত্র অশোক সিনহাও বলেন, ‘‘ওঁরা দলের হুইপের বিরুদ্ধে গিয়েছেন। সিপিএমের সঙ্গে জোট করেনি বিজেপি’’।

এদিকে, এ প্রসঙ্গে সিপিএম ও বিজেপিকে কটাক্ষ করে কংগ্রেসের সহ-সভাপতি তাপস দে বলেন, ‘‘একদল চরম ডানপন্থী, আরেক দল চরম বামপন্থী। তারা বরাবরই একসঙ্গে রয়েছে। সব সুযোগসন্ধানী দল। ওদের কাছে ক্ষমতা দখলই আসল লক্ষ্য। মানুষের রায় নিয়ে মাথা ঘামায় না’’।

উল্লেথ্য, শ্রীনাথপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে মোট ১৩ জন সদস্য। নতুন কমিটিতে সিপিএমের ৫ জন ন‌ির্বাচিত প্রতিনিধির মধ্যে রয়েছেন ৪ জন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here