মায়া সেন স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত সিদ্ধার্থ সিংহ

0
22

নিজস্ব প্রতিবেদক,কলকাতাঃ

the literature awarded to sidhrato singha
নিজস্ব চিত্র

দক্ষিণ কলকাতার তপন থিয়েটারে আজ ‘মায়া সেন স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার ১৪২৫’ তুলে দেওয়া হল একাধারে বিশিষ্ট কবি, ছড়াকার, গল্পকার,ঔপন্যাসিক, নাট্যকার,গীতিকার, প্রাবন্ধিক, চিত্রনাট্যকার এবং সঙ্গীত পরিচালক সিদ্ধার্থ সিংহের হাতে।

আজীবন শিশুসাহিত্যে অবদানের জন্য। তার ‘৫১ ছোটদের ছোট গল্প’ বইটিকে এ বছর এই পুরস্কার প্রদান করা হল। বইটির প্রকাশক : নিউ বেঙ্গল প্রেস প্রাইভেট লিমিটেড। এই বই বেরোবার সঙ্গে সঙ্গেই হইহই পড়ে গিয়েছিল। সদ্য প্রয়াত লেখকদের লেখক এবং সম্পাদকদের সম্পাদক রমাপদ চৌধুরী আনন্দবাজারে লিখেছিলেন উচ্চসিত প্রশংসা।

আরও পড়ুনঃ শান্তি পুরস্কারের লক্ষ্যে ভোট পরিচালনার বার্তা অনুব্রতর

এদিন কবি,সাহিত্যিক,পাঠক এবং সমাজের বিশিষ্ট গণ্যমান্য ব্যক্তিতে কানায় কানায় পূর্ণ প্রেক্ষাগৃহে এই পুরস্কার এবং এই পুরস্কারের আর্থিক মূল্য একান্ন হাজার টাকা তুলে দিলেন আর এক বর্ষিয়ান কবি শ্যামলকান্তি দাশ। উত্তরীয় পরিয়ে দিলেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও শিল্পী সমরেশ চৌধুরী।

পুষ্পস্তবক তুলে দিলেন এই সময়ের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কবি অমৃতা চট্টোপাধ্যায়।এ ছাড়াও ছিলেন বহু কবি,সাহিত্যিক, নাট্যকার ও খেলাধুলো জগতের বহু বিশিষ্ট জন। সিদ্ধার্থ সিংহ সম্পর্কে বললেন তাঁর বেশ কয়েকটি গল্প এবং উপন্যাসের নাট্যরূপকার ও নাট্য পরিচালক শ্রী সত্যজিৎ কোটাল। বললেন কুলিশ প্রকাশনীর কর্ণধার এরং কুলিশ পত্রিকার সম্পাদক শ্রীকমল সেন।

সিদ্ধার্থ সিংহের পরিচিতি

সিদ্ধার্থ সিংহ : ২০১২ সালের ‘বঙ্গ শিরোমণি’ সম্মানে ভূষিত সিদ্ধার্থ সিংহের জন্ম কলকাতায়। ১৯৬৪ সালে।  ক্লাস নাইনে পড়ার সময়ই তাঁর প্রথম কবিতা ছাপা হয় ‘দেশ’ পত্রিকায়। প্রথম ছড়া ‘শুকতারা’য়।  প্রথম গদ্য ‘আনন্দবাজার’-এ।

প্রথম গল্প ‘সানন্দা’য়। যা নিয়ে রাজনৈতিক মহল তোলপাড় হয়। মামলা হয় পাঁচ কোটি টাকার। ছোটদের জন্য যেমন সন্দেশ, আনন্দমেলা, কিশোর ভারতী, চির সবুজ লেখা, ঝালাপালা, রঙবেরং, শিশুমহল ছাড়াও বর্তমান, গণশক্তি, রবিবাসরীয় আনন্দমেলা-সহ সমস্ত দৈনিক পত্রিকার ছোটদের পাতায় লেখেন, তেমনি বড়দের জন্য লেখেন কবিতা, গল্প, উপন্যাস, নাটক, প্রবন্ধ এবং মুক্তগদ্য। ‘রতিছন্দ’ নামে এক নতুন ছন্দের প্রবর্তন করেছেন তিনি। এ পর্যন্ত প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা দুশো একচল্লিশটি। তার বেশির ভাগই অনুদিত হয়েছে বিভিন্ন ভাষায়। বেস্ট সেলারেও উঠেছে সেসব।

এছাড়া যৌথ ভাবে সম্পাদনা করেছেন লীলা মজুমদার,রমাপদ চৌধুরী,নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, মহাশ্বেতা দেবী,শংকর,সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়,শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়, সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়, সুচিত্রা ভট্টাচার্য, নবনীতা দেবসেন, রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়দের সঙ্গে। তাঁর লেখা নাটক বেতারে তো হয়ই, মঞ্চস্থও হয় নিয়মিত। তাঁর কাহিনি নিয়ে ছায়াছবিও হয়েছে বেশ কয়েকটি। গান তো লেখেনই। মিউজিক ডিরেক্টর হিসেবেও কাজ করেছেন বেশ কয়েকটি বাংলা ছবিতে। তাঁর ইংরেজি এবং বাংলা কবিতা অন্তর্ভুক্ত হয়েছে কয়েকটি সিনেমায়।

বানিয়েছেন দুটি তথ্যচিত্র। তাঁর লেখা পাঠ্য হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদে। ইতিমধ্যে পেয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ শিশু সাহিত্য সংসদ পুরস্কার, কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত পুরস্কার, কাঞ্চন সাহিত্য পুরস্কার, সন্তোষকুমার ঘোষ স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা লোক সাহিত্য পুরস্কার, প্রসাদ পুরস্কার, নতুন গতি পুরস্কার, ড্রিম লাইট অ্যাওয়ার্ড, কমলকুমার মজুমদার জন্মশতবর্ষ স্মারক সম্মান, কবি সামসুল হক পুরস্কার, সুচিত্রা ভট্টাচার্য স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার, অণু সাহিত্য পুরস্কার, কাস্তেকবি দিনেশ দাস স্মৃতি পুরস্কার, শিলালিপি সাহিত্য পুরস্কার, চেখ সাহিত্য পুরস্কার ছাড়াও ছোট-বড় অজস্র পুরস্কার ও সম্মাননা। পেয়েছেন ১৪০৬ সালের ‘শ্রেষ্ঠ কবি’ এবং ১৪১৮ সালের ‘শ্রেষ্ঠ গল্পকার’-এর শিরোপা।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485