দাসপুর, ডেবরায় শুভেন্দু অধিকারীর কুশপুত্তলিকা দাহ করে তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভ

0
97

নিজস্ব সংবাদদাতা,পশ্চিম মেদিনীপুরঃ

শুভেন্দু অধিকারী শনিবার মেদিনীপুর কলেজ মাঠে বিজেপির সর্বভারতীয় প্রাক্তন সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাত থেকে দলীয় পতাকা নিয়ে বিজেপিতে যোগদান করেন।সেই সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল কংগ্রেস সম্পর্কে তোলাবাজি সহ বিভিন্ন ভাষায় আক্রমণ করে তার বক্তব্য রাখেন।

banner | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

তারই পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর থানার গোবিন্দ নগর এলাকায় ঘাটাল,পাঁশকুড়া রাজ্য সড়কের মাঝে শুভেন্দু অধিকারীর কুশপুত্তলিকা দাহ করে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী ও সমর্থকরা।

সেইসঙ্গে জল দিয়ে চিতার আগুন নেভায় এবং তার চিতাভস্ম মাটির ভাঁড়ে সংগ্রহ করে রাখে। তৃণমূল কর্মীদের পক্ষ থেকে বলা হয় ওই চিতাভস্ম গঙ্গায় ভাসিয়ে দেওয়া হবে যাতে তৃণমূলের আত্মা শুভেন্দুর সাথে না থাকে। সেটা গঙ্গায় বিসর্জন দেওয়া হবে, কারণ তৃণমূলের সাথে সে বেইমানি করেছে গদ্দারী করেছে, শুভেন্দু অধিকারী বিশ্বাসঘাতক, মীরজাফর।

আরও পড়ুনঃ শুধু ভাইপো নয়, সমগ্র তৃণমূল দলকে হঠাতে বলছিঃ অধীর চৌধুরী

poster | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

শুভেন্দু অধিকারী কে উপযুক্ত শিক্ষা দেওয়ার জন্য আমরা তাঁর কুশপুত্তলিকা দাহ করেছি এবং তার অনুগামী লেখা ব্যানারগুলো পুড়িয়ে আমরা বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছি। আগামী দিনে শুভেন্দু অধিকারী কে এই এলাকার মানুষ উপযুক্ত শিক্ষা দেবে বলে তারা জানান।

আরও পড়ুনঃ দশ বছর ধরে মমতাকে প্রণাম করেছেন শুভেন্দু অধিকারী-আক্রমণাত্মক কল্যাণ

অপরদিকে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেবরা ব্লকের গোলগ্রাম গ্রামে ‘দাদার অনুগামী’ শুভেন্দু অধিকারীর লেখা ব্যানার পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল কর্মীরা। তৃণমূল কর্মীরা শুভেন্দু অধিকারীর আচরণে ক্ষুব্ধ। কারণ সাম্প্রদায়িক শক্তি বিজেপির সাথে হাত মিলিয়েছে।

তাই তাকে উপযুক্ত শিক্ষা দেওয়ার জন্য পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন এলাকায় তার কুশপুত্তলিকা দাহ কর্মসূচি শনিবার শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে তাকে চ্যালেঞ্জ করেছেন ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে শুভেন্দু অধিকারীর যদি বুকের পাটা থাকে তবে বিজেপিকে বাংলায় ক্ষমতায় নিয়ে আসুক, তাহলে ভাববো তিনি বীরপুরুষ।তা না হলে তাকে এই রাজ্য থেকে চলে যেতে হবে গুজরাটে বলে এমন হুমকি দেন কয়েকজন কর্মী।

তৃণমূলের কর্মীরা আরো বলেন যে, তৃণমূল যদি তোলাবাজ হয় তাহলে ওনার বাবা ভাই কেন এখনো পদ আগলে রেখেছে তারাও তাহলে তোলাবাজ। তাদের দল ছাড়তে উনি কেন বলেননি। যদি ক্ষমতা থাকে ওনার বাবা-ভাইকে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লেখাতে বলুক বলে তীব্র ভাষায় তারা কটাক্ষ করেন শুভেন্দু অধিকারীকে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here