দুর্নীতির অভিযোগে আত্মসমর্পণ তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধানের, পাশে নেই দল

0
19

নিজস্ব সংবাদদাতা, উত্তর দিনাজপুরঃ

দুর্নীতির অভিযোগে রায়গঞ্জ আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন বিন্দোল গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের প্রধান। অভিযুক্ত লায়লা খাতুনের স্বামী ওই পঞ্চায়েতের প্রাক্তন উপপ্রধান মনসুর আলি। তিনি এলাকায় যুব তৃণমূল নেতা হিসেবে পরিচিত।

dewani court | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

সরকারি টাকা তছরুপ, জালিয়াতি, সরকারি সম্পত্তি আত্মসাৎ ও বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগে পুলিশ লায়লার বিরুদ্ধে একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করেছে। বিচারক পেনডেন ডুকপা তাঁর জামিনের আবেদন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

জেলা তৃণমূল সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল এবিষয়ে বলেন, ‘‘দলের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি রক্ষায় অনেক আগেই ওই প্রধানের পুলিশ বা আদালতের কাছে আত্মসমর্পণ করা উচিত ছিল।’’ লায়লা খাতুনের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে গত বছরের মে মাস থেকে একটানা আন্দোলন শুরু করে বিন্দোল নাগরিক কমিটি।

আরও পড়ুনঃ পঞ্চাশ ছুঁই ছুঁই সোনা, বেড়েছে রূপোর দামও

অভিযোগ, অভিযুক্ত ১০০ দিনের প্রকল্প ছাড়াও বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প থেকে ১ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা তছরুপ করেছেন। প্রশাসন তদন্তে নেমে গত বছরের ২২ জুলাই রায়গঞ্জের বিডিওকে চিঠি পাঠিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে ওই প্রকল্পের ৬ লক্ষ ৮৮ হাজার ৩৬৪ টাকা জেলা প্রশাসনের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা দিতে প্রধানকে নির্দেশ দেন। নির্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও প্রধান টাকা ফেরত দেননি বলে প্রশাসনের অভিযোগ।

আরও পড়ুনঃ চাকরি দেওয়ার নামে বড়রকমের প্রতারণার ফাঁদ বড়ঞায়

এরপরেই বিডিওর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ লায়লা ও ওই পঞ্চায়েতের কার্যনির্বাহী সহায়কের বিরুদ্ধে তছরুপ, জালিয়াতি, সরকারি সম্পত্তি আত্মসাৎ ও বিশ্বাসভঙ্গের অভিযোগে একাধিক জামিন অযোগ্য মামলা দায়ের করলে লায়লা খাতুন আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485