পর্যটক টানতে অট্টহাস মন্দিরের সংস্কারে দু কোটি বরাদ্দ

0
340

শ্যামল রায়,বর্ধমানঃ

কেতুগ্রাম ২ নম্বর ব্লকের অট্টহাস মন্দির সংস্কারের জন্য পর্যটন দফতর থেকে বরাদ্দ করা হয়েছে প্রায় দু’কোটি টাকা। কাজ শীঘ্রই শুরু হবে জানিয়েছেন স্থানীয় বিধায়ক শেখ শাহনেওয়াজ।
এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল অট্টহাস সতীপীঠ একটা পীঠ। তাই এই সতীপীঠ অট্টহাস মন্দিরের সংস্কার করে পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় রূপে গড়ে তোলার আবেদন ছিল দীর্ঘদিনের। সেই আবেদনে রাজ্য পর্যটন দফতর সাড়া দিয়ে বরাদ্দ করেছে এক কোটি ৯৭ লক্ষ  ৫২ হাজার টাকা।
জানা গিয়েছে অট্টহাস মন্দির প্রাঙ্গণে সনদ অর্জনের কাজ শুরু হবে সেই সাথে পর্যটকদের থাকার জন্য আবাসন তৈরি হবে। তৈরি হবে রাস্তা গেট এবং শৌচাগার ও পাচিল।
ইতিমধ্যে ৫০ লক্ষ টাকা এসে গিয়েছে। কাজ শুরু হলেই বাকি কাজের জন্য টাকা এসে যাবে এমনটাই জানা গিয়েছে।


কেতুগ্রাম 2 নম্বর ব্লকের কেতুগ্রামের নিকট ছোট নদী ঈশানীর তীরে এই অট্টহাস মন্দিরটি অবস্থিত।
প্রসঙ্গত উল্লেখ থাকে যে৫১ পিঠের মধ্যে একটি পিঠ অট্টহাস।
এখনো এলাকার মানুষের কাছে অট্টহাস মন্দিরটিতে মিস্টার সরকার এই দৈনন্দিন পুজো হয় এবং সেই সাথে ভিতরে প্রবেশ করলে গা ছমছম করে এমনটাই জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। কাটোয়ার গবেষক তারকেশ্বর চট্টরাজ জানিয়েছেন যে এই অট্টহাসে দেবীর  অধ ওষ্ঠ পড়ে।রয়েছে মায়ের অধওষ্ঠ আকৃতির বিশাল শিলা মুর্তি।
দেবীর নাম ফুল্লরা।
ভৈরব বিল্লুনাথ। নিকটবর্তী বীরেশ্বর গ্রামে বিরাজ করেন। নিত্য সেবা হয় উল্লেখ্য বীরভূম জেলার লাভপুর সংলগ্ন অট্টহাস সতীপীঠ ৫১ পীঠের অন্যতম একটি বলে পীঠ বলে স্বীকৃত আজও।

তাই এই সতীপীঠ অট্টহাস মন্দিরটি দেখতে ও পুজো দিতে বছরের প্রত্যেকটা সময়ে দেশবিদেশ থেকে বহু পর্যটক এখানে আসেন। তাই অভাব ছিল এই মন্দিরে আসা পর্যটকদের জন্য সুব্যবস্থাপনা।
সেই ব্যবস্থাপনার কাজ ঢেলে সাজানোর পক্রিয়া শুরু হবে শীঘ্রই। বরাদ্দ হয়েছে অর্থ। তবে এইসব মন্দিরের সংস্কারের কাজ করবে পূর্ত দফতর।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here