আক্রান্তের পরিবারকে স্থানীয় বাসিন্দাদের চাপে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে পাঠালো প্রশাসন

0
19

নিজস্ব সংবাদদাতা, উত্তর দিনাজপুরঃ

স্থানীয় বাসিন্দাদের চাপে পড়ে করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার ২৪ ঘন্টা পর মঙ্গলবার চোপড়ার আক্রান্তের পরিবারের সদস্যদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। পরিযায়ী শ্রমিকের শরীরে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ার পরেও স্থানীয় প্রশাসনের কোন তৎপরতা ছিলনা বলে অভিযোগ উঠেছে। আক্রান্ত পরিযায়ী শ্রমিকের বাড়ি চোপড়া ব্লকের লক্ষীপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়।

quarantine | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

ভিনরাজ্য ফেরত এক পরিযায়ী শ্রমিকের শরীরে সোমবার করোনা ভাইরাস পজিটিভ মেলে। খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। ওই এলাকাকে কনটেইনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা সহ আক্রান্তের সংস্পর্শে আসা সকলকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর দাবি করেন স্থানীয়রা। ওই করোনা আক্রান্তকে ঘিরে এতটাই আতঙ্ক ছড়িয়েছে যে এদিনও ওই অঞ্চলের রাস্তাঘাট কার্যত শুনসান হয়ে যায়।

আরও পড়ুনঃ পরিযায়ী শ্রমিকদের গ্রামে ঢুকতে বাধা, পাশে তৃণমূলের জনপ্রতিনিধি

বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কাউকেই বাড়ির বাইরে দেখা যায়নি। বুধবারও অবস্থার কোন পরিবর্তন হয়নি। বিডিও জুনেইদ আহমেদ বলেন, আক্রান্তের পরিবারের সদস্য সহ তিনি কাদের সংস্পর্শে এসেছিলেন তালিকা করা হচ্ছে। অন্যদিকে, তার সঙ্গে এলাকার যারা একসঙ্গে ভিন রাজ্য থেকে বাড়ি ফিরেছিলেন তাদেরও সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here