কৃষি জমিতে এখনো বন্যার জল আটকে,মাথায় হাত কৃষকদের

0
142

উমার ফারুক,হরিশ্চন্দ্র পুর,মালদা,১২নভেম্বর:

এবারের বন্যায় মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্র পুর-১ও২ব্লক চরম বিপর্যস্ত হয়েছে।বাড়িঘর,গবাদিপশু থেকে ক্ষেতের ফসল সমস্ত কিছুই বন্যার করল গ্রাসের শিকার।বন্যার জল নেমে যাওয়া প্রায় দুইমাস হয়ে গেলেও হরিশ্চন্দ্র পুর-২ব্লকের সুলতান নগর অঞ্চলের রাধিকাপুর, হাজীপুর,ডহরা এবং নানারাহি গ্রামের প্রায় একশো বিঘে কৃষি জমিতে এখনও বন্যার জল আবদ্ধ হয়ে আছে।নিকাশি ব্যবস্থা না থাকায় জল কোন মতে বের হচ্ছে না।এর ফলে কৃষকরা নতুন ফসল উৎপাদন করার জন্য বীজতলা প্রস্তুত করতে পারছেন না।এমনিতেই বন্যার জলে ডুবে ধান নষ্ট হয়ে গেছে।আবার নতুন করে ফসল ফলানোর জন্য চাষিরা জমিতে গেলে দেখেন জল জমে আছে।বীজতলা প্রস্তুত না হলে ফসল উৎপাদন করা যাবে না তাই মাথায় হাত চাষিদের।

জল নিকাশি ব্যবস্থা করার জন্য এলাকাবাসী হরিশ্চন্দ্র পুর-২ব্লক প্রশাসনের দ্বারস্থ হন।জাকারিয়া,আবু বাক্কার প্রমুখ সংশ্লিষ্ট ব্লকের বিডিও মহাশয় কে এই বিষয়ে লিখিত আবেদন জানান গত ২রা নভেম্বর ২০১৭।তারা বলেন-ব্লক প্রশাসন কে আবেদন জানানোর পর প্রায় দশদিন অতিক্রান্ত।কিন্তু তার পরেও মাঠের জল বের হয়নি।জল বের না হলে ফসল উৎপাদন করতে পারব না,আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি হবে।এই প্রসঙ্গে হরিশ্চন্দ্র পুর-২ব্লকের বিডিও কৃষ্ণচন্দ্র দাস জানান-“সুলতান নগর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কে ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাঠের জল নিকাশ করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।প্রধান সেখানে উপস্থিত থেকে জল বের করার চেষ্টা করেন কিন্তু স্থানীয় কিছু লোক তাতে বাধা দেয়ায় সম্ভব হয়নি।আমি সোমবার সেখানে সশরীরে উপস্থিত থেকে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেব।”

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here