Covid19: করোনা আক্রান্ত কেরল ও বাংলার ৩৪ পড়ুয়া, বন্ধ করা হল বেঙ্গালুরুর নার্সিং কলেজ

0
44

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সরে যেতেই দেশে করোনা তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার সতর্কতা জারি করা হয়েছে। করোনার দাপট কমতে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে জনজীবন। ধীরে ধীরে খুলে যাচ্ছে স্কুল-কলেজ। স্বস্তির বাতাস বইতে শুরু করেছে চারিদিকে। এরই মধ্যে আবারও জনসাধারণকে চিন্তায় ফেলে দিল করোনা। কর্ণাটকের আরও একটি নার্সিং কলেজে কোভিডের প্রকোপ।

Covid ward
সৌজন্যেঃ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

বেঙ্গালুরুর হোরামাভু-আগারা রোডে অবস্থিত ক্রিশ্চয়ান কলেজ অফ নার্সিংয়ে পড়ুয়াদের কোভিড পরীক্ষা করা হলে দেখা যায়, ৩৪ জন পড়ুয়ার শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। করোনা সংক্রামিতরা সবাই কেরল এবং বাংলার বলেও জানা গিয়েছে। করোনা সংক্রমণ ধরা পড়তেই গতকাল বৃহস্পতিবার বন্ধ করে দেওয়া হল বেঙ্গালরুর ওই নার্সিং কলেজের দরজা। কলেজে আক্রান্ত সকল পড়ুয়াকে আপাতত হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেডের কোভিড কেয়ার সেন্টারে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

এর আগে কোলার নূরুন্নিসা ইনস্টিটিউট অফ নার্সিংয়ের ৬৫ জন পড়ুয়া করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এদিকে, দক্ষিণ কন্নড়ে জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক লক্ষ্য করেছিলেন, যে এই করোনা আক্রান্ত পড়ুয়াদের অধিকাংশই ১৯ অগাস্ট কেরল থেকে নিজেদের কলেজে ফিরেছিলেন। তবে উভয় কলেজের ক্ষেত্রেই নাকি পড়ুয়ারা যখন কর্ণাটকে আসেন, তাঁদের কাছে কোভিডের আরটি-পিসিআর টেস্ট করা হলে রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। পাশাপাশি রাজ্যে এসে পরীক্ষা করানোর পরও তাঁদের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মেলেনি।

আরও পড়ুনঃ টেট পরীক্ষায় ‘প্রশ্ন ভুল’ মামলায় প্রাথমিক বোর্ড সভাপতিকে জরিমানার নির্দেশ হাইকোর্টের

কলেজ সূত্রে জানা যায়, ২৮ অগাস্ট প্রথমে ১০ জন পড়ুয়ার কোভিড পরীক্ষা করা হলে রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তারপর ৩০ অগাস্ট আরও ১২ জন পড়ুয়ার সন্ধান পাওয়া যায়, যাঁরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এরপর গতকাল, বৃহস্পতিবার আরও ১২ জন পড়ুয়ার শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। মোট বেঙ্গালুরুর ওই নার্সিং কলেজের ৩৪ জন পড়ুয়া করোনায় সংক্রামিত হয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ প্রবল বৃষ্টির জেরে প্লাবিত নিউ ইয়র্ক, হড়কা বানে মৃত কমপক্ষে ৪৬ জন

এদিকে, করোনা আক্রান্ত পড়ুয়াদের সবাই কোভিড টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। আক্রান্ত হওয়ার পর তাঁদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে বেঙ্গালুরু পৌরনিগমের তরফে। কলেজ সূত্রে খবর, অসুস্থ ২২ জন মহিলা এবং ১২ জন পুরুষের কারোর শারীরিক অবস্থার সেরম কোনও অবনতি হয়নি। তাঁদের সকলের উপসর্গ হাল্কা। শীঘ্রই তাঁরা সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে জানান সেখানকার চিকিৎসকরা। তবে কলেজের সমস্ত শিক্ষক, শিক্ষিকা, স্টাফ এবং পরে করোনা আক্রান্ত পড়ুয়াদের হোস্টেল, ফ্ল্যাট বা তাঁরা যেখানে থাকেন সেখানকার সকলের নমুনা পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here