অবৈধ সম্পর্কের সন্দেহে জামাইকে হত্যার অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে

0
93

পিয়ালী দাস, বীরভূমঃ

বিয়ের পরেও অন্য মহিলার সাথে সম্পর্ক, এই সন্দেহে জামাইকে বিষ খাইয়ে খুনের অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে।
ঘটনাটি বীরভূমের নানুর এলাকার বালিগুনি গ্রামের ঘটনা। মৃত জামাইয়ের নাম রসূল বক্স, বাড়ি মুর্শিদাবাদ জেলার খারেরা। বয়স আনুমানিক ৪৫ বছর। মুম্বাইয়ে কর্মরত ছিলেন রসূল বক্স।
মুম্বাই থেকে চারদিন আগে সে নানুরের বালিগুনির শ্বশুরবাড়িতে ফিরেছিল। কিন্তু হঠাৎ গতকাল দুপুর থেকে প্রতিবেশীরা দেখতে পাচ্ছিলেন না। প্রতিবেশীরা জিজ্ঞেস করলে রসূলের শ্বশুর বাড়ির লোকজন বলে সে আবার মুম্বাই কাজে ফিরে চলে গেছে।
কিন্তু রসূলের শ্বশুরবাড়ির এত সুন্দর পরিকল্পনায় জল ঢেলে দেয় ওই বাড়িরই ছোট বউ। চুপিসারে সে প্রতিবেশীদের বলে দেয় যে, রসূল বক্সকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন খুন করে সেফটি ট্যাঙ্কে লুকিয়ে রেখে দিয়েছে। শুধু তাই নয়, সাদা কাপড়ে, লবন দিয়ে মুড়ে দেহ লোপাটের চেষ্টাও করা হয়েছে। এই খবর জানার পর স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়, পুলিশ গতকালই রাতে এসে ওই বাড়ির সেফটি ট্যাঙ্ক খোলে এবং সাদা কাপড় ও লবণে মোড়া দেহ উদ্ধার করে। সেই দেহ ময়নাতদন্তের জন্য বোলপুর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর রসূল বক্সের শ্বশুর, শ্বাশুড়ি, বউ এবং শালিকা এই চারজনকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। রসূলের শ্বশুরবাড়ির লোকজন জানিয়েছে, রসূলের সাথে অন্য এক মহিলার সম্পর্ক ছিল এবং বিয়ে করা সত্ত্বেও অন্য মহিলার সাথে থাকতো বলে অভিযোগ।  পুলিশ অবশ্য গোটা বিষয়টা খতিয়ে দেখছে। শুধুই কি অন্য মহিলার সাথে সম্পর্ক, না খুনের পিছনে অন্য কারুর হাত রয়েছে  ? এই সমস্ত বিষয়ই পুলিশ খতিয়ে দেখছে। পুরো বিষয়টির তদন্ত শুরু করেছে নানুর থানার পুলিশ।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here