পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগেই জেলা সফরে মুখ্যমন্ত্রী

0
367

শ্যামল রায় বর্ধমান:  উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ এপ্রিলেই শেষ করার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর। একশোদিনের কাজে দেশের প্রথম পূর্ব বর্ধমান জানালেন মুখ্যমন্ত্রীউন্নয়নের জন্যই দেশের সেরা একশো দিনের কাজে প্রথম পূর্ব বর্ধমান জেলা।
পঞ্চায়েত ভোটের আগেই উন্নয়ন প্রকল্পের যাবতীয় কাজকর্ম শেষ করতে হবে এপ্রিলের মধ্যেই। আর এই উন্নয়নকে কেন্দ্র করেই আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভোটাররা ভোট দিয়ে আমাদের জয়যুক্ত করবেন এজন্য আপনাদের বাড়ি বাড়ি প্রচার করতে হবে সরকারের উন্নয়নের কথা। কাজ নিয়ে কোনোরকম গড়িমসি করা যাবে না। নির্দেশ দিলেন উপস্থিত জেলা প্রশাসনিক আধিকারিকদের।


মঙ্গলবার জেলা সফরে এসে পূর্ব বর্ধমান জেলার আউসগ্রাম থানার অন্তর্গত শিবদা মোড়ে এক প্রশাসনিক সভায় এই কথা বললেন তাজের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় আরো বলেন যে বন্যা প্রতিরোধে 500 কোটি টাকা বরাদ্দের কথা ঘোষণা করলেন। এর ফলে উপকৃত হবে বর্ধমান হাওড়া এবং হুগলি জেলা। এছাড়াও এদিন তিনি নতুন রাস্তা তৈরির জন্য 300 কোটি টাকার বরাদ্দ কথা ঘোষণা করলেন। তিনি জানিয়ে দিলেন গ্রামে-শহরে সমস্ত জায়গাতে নতুন নতুন রাস্তা তৈরি করা হবে।ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি ঘটবে। যত রাস্তাঘাটের উন্নতি হবে ততই বাড়বে মানুষের কর্মসংস্থানের সুব্যবস্থা । যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি মানেই ব্যবসায়িক পরিষেবা উন্নতি ঘটবে । রাস্তা সহ নানান দিকের যাতায়াতের ক্ষেত্রে ও সহজতর হবে বলে জানিয়ে দিলেন তিনি।
মানুষের যতটুকু প্রয়োজন চাইবে সেদিকে নজর দিতে হবে নির্দেশ দিলেন জেলাশাসক সহ প্রশাসনিক আধিকারিকদের।
তিনি আরও জানিয়েছেন যে আগামী রাম নবমীতে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে কোনোরকম সভা-মিছিল করা যাবে না এ বিষয়টি দেখবার জন্য এলাকায় শান্তি বজায় রাখার জন্য পুলিশ ও প্রশাসনিক আধিকারিকদের নির্দেশ দিলেন। তিনি এই প্রশাসনিক সভায় স্পষ্ট করে দেন যে শান্তিপ্রিয় বাংলাকে উন্নতির যে ধারা বইছে একে কোনভাবেই স্তব্ধ করা যাবে না। এর জন্য সকলের কাছে সহযোগিতার কথা বলেন তিনি। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন যে গুসকরা থানার সমস্ত পরিকাঠামো তৈরি হয়ে গেলেও আজও কেন চালু হলো না? বিষয়টি সুরজিৎ পুরকাসত কে দেখবার জন্য নির্দেশ দেন তিনি।
এছাড়াও তিনি প্রশাসনিক সভায় 100 দিন প্রকল্পের কাজ নিয়ে বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন এবং বলেন আজকে দেশের মধ্যে প্রথম পূর্ব বর্ধমান জেলা হয়েছে।
রাইসমিল নিয়েও নানা ধরনের প্রশ্ন তোলেন তিনি। এবং সকলের কাছে সহযোগিতার কথা জানান।
বালি খাদান নিয়েও সরব হন।
সেই সাথে এদিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় সরকারি প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধার কথা বাড়ি বাড়ি এবং ভোটারদের কাছে বলতে হবে সেই সাথে জেলার আধিকারিকরা ও যাতে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ দ্রুত শেষ করেন সে দিকে নজর দেওয়ার কথাও তিনি জানিয়ে দেন। মুখ্যমন্ত্রীর সভা ঘিরে ব্যাপক নিরাপত্তা বেষ্টনীতে ঘিরে রাখা হয়েছিল। এই প্রশাসনিক সভায় রাজ্যের অন্যতম মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জেলা পরিষদের সভাধিপতি দেবু টুডু, জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব জেলা পুলিশ সুপার কুনাল আগরওয়াল বিধায়ক অভেদানন্দ থান্ডার বিধায়ক সুভাষ মন্ডল বিধায়ক শেখ শাহ নেওয়াজ রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় উজ্জল প্রামানিক সকল জনপ্রতিনিধি এবং সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক মহাকুমা শাসকগণ উপস্থিত ছিলেন।

ছবি কুন্তল চট্টোপাধ্যায়

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485