ধারাবাহিক চুরির বন্ধের দাবীতে পথে নামলো মহালন্দীর ছাত্র-শিক্ষক

0
466

নিজস্ব সংবাদদাতা,কান্দীঃ 

আজ দুপুরে শিক্ষার্থী শিক্ষক শিক্ষাকর্মী সকলে মিলেই পথে নামলেন।ঘটনার প্রকাশ এই যে, মহালন্দী-১নং গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্ভুক্ত মহালন্দী জি সি হাই স্কুল(উঃ মাঃ)। মহালন্দী সহ পাশ্ববর্তী দুর্লভপুর আশুয়া তেঁতুলিয়া জামনা জিয়াখর্দ্দ ডাঙ্গাপাড়া মহালং জিয়াদাড়া ইত‌্যাদি এই বিশাল জনবসতির প্রায় ২৭০০ জন ছাত্রছাত্রী পড়াশুনো করে এই স্কুলে।সমগ্র পঞ্চায়েত এলাকায় একটিই মাত্র স্কুল উচ্চমাধ্যমিক স্তরের।ছাত্র-শিক্ষক সংখ‌্যানুপাতে নিতান্ত সামান‌্য হলেও, কর্তার ইচ্ছেই কর্ম।বিগত দিনের অভিযোগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কেবলই অব‌্যাবস্থা ও অসচেতনতার জন‌্য স্কুলে অফিস ঘর ভেঙে চুরির চেষ্টা করা হয় দিনকয় আগে।যদিও এ ঘটনা নতুন নয় এর পূর্বেও দুবারে দুটি প্রজেক্টর, ল‌্যাপটপ চুরি গেছে। সরকারি সম্পত্তি লুট করেছে চোরেরা।

চলছে ছাত্রদের প্রতিবাদ।নিজস্ব চিত্র

স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও আজও পর্যন্ত পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করতে পারে নি।মাস পাঁচেক পূর্বেও স্কুলের তালা ভেঙ্গে স্কুলের ঘন্টা এবং কিছু সামগ্রী চুরি যায়।কিন্তু বিগত কয়দিন আগের চুরিতে নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। তদন্ত শুরু করতেই হদিশ মেলে চোরের। গ্রেফতারও করা হয়। পুলিশ চুরির সামগ্রীসহ চোরকে গ্রেফতার করলেও, এখনও অব্দি মিডডে মিলের চাল ছোটখাটো সামগ্রীর চুরি চলতেই থাকছে। মহালন্দী পুলিশ ক্যাম্প থেকে মাত্র চারশো মিটার দূরে অবস্থান এই স্কুলের। চুরি রোধে কোন স্থায়ী ব্যবস্থার উদ্যোগ প্রশাসনের তরফ থেকে নেওয়া হয় নি।এই ধারাবাহিক চুরির বন্ধের দাবীতে ক্লাস রুম ছেড়ে পথে নামে ছাত্র-শিক্ষক-শিক্ষাকর্মীরা। ধারাবাহিক ভাবে ঘটে যাওয়া চুরির বিরুদ্ধে ছাত্র শিক্ষক শিক্ষাকর্মী মিলিতভাবে মিছিল করলে পুলিশের পক্ষ থেকে অত‌্যন্ত দুর্ব‌্যবহার করা হয় তাদের সঙ্গে।চুর রোধ করতে ব্যর্থ হলেও বৃষ্টির মধ্যে ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে মিছিল কেন করা হয়েছে তা নিয়ে প্রশাসনিক পদক্ষেপের নেওয়ার চোখ রাঙাতে অতি সক্রিয় স্থানীয় পুলিশ।

চলছে ছাত্রদের প্রতিবাদ।নিজস্ব চিত্র

বিভিন্ন অনিয়ম সুস্থ শিক্ষার পরিবেশের দাবীতে বিগত বছরে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা সম্মিলিত ভাবে আঠারো দফা দাবীতে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা সবনম বেগমকে ডেপুটেশন দেন। এই ডেপুটেশনের পর সাময়িক ভাবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। কিন্তু মেলেনি স্থায়ী সমাধান। পুণরায় স্থায়ী সমাধান চাইতে যুথবদ্ধ হচ্ছে এলাকার মানুষ।তারা তাদের সাহায‌্যের দুহাত বাড়িয়ে দিয়েছেন শিক্ষক-শিক্ষিকা-শিক্ষাকর্মী ও ছাত্রদের প্রতি। কিন্তু হেলদোল নেই পুলিশ প্রশাসন ও স্কুল কর্তৃপক্ষের। তাদের পক্ষ থেকে তেমন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা লক্ষ্য করা যায় নি বলেই অভিযোগ সাধারণ মানুষের।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here