মহামারির ধাক্কায় বিপর্যস্ত বালুরঘাটের কুমোরটুলি

0
76

নিজস্ব সংবাদদাতা,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ

মাঝে আর কয়েকটা দিনই বাকি তারপরেই বিশ্বকর্মা পুজোয় মাতবে বাঙালি। প্রতিবছর বিশ্বকর্মা পুজো উপলক্ষে এতদিনে সাজ সাজ রব পড়ে যায় বালুরঘাটের কুমোরটুলি গুলিতে। বালুরঘাটের কুমারটুলি গুলিতে ব্যস্ততার শেষ মূহুর্ত বিরাজ করে এই সময়।

Biswakarma Pujo | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে অন্য বছরের সাথে এই বছরের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভিন্ন। করোনা আবহে এবছর বালুরঘাটের মৃৎ শিল্পীদের কাছে বিশ্বকর্মা ঠাকুর তৈরীর অর্ডার নেই বললেই চলে। বালুরঘাট শহরের কুমারটুলি গুলিতে গিয়ে দেখা গেল অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর ঠাকুর তৈরি হয়েছে যৎসামান্যই। দশ ভাগের এক ভাগও নয়।

Uttam Pal | newsfront.co
উত্তম পাল – মৃৎশিল্পী ৷ নিজস্ব চিত্র

তাই সমস্যায় পড়েছেন বিশ্বকর্মা পুজোর ঠাকুর তৈরির ওপর নির্ভর করে থাকা অনেক মৃৎশিল্পীই। তাদের সারা বছরের রুজির একটা বড় যোগান এই বিশ্বকর্মা পুজোর ঠাকুর তৈরী থেকে হয় । কিন্তু এই বছর করোনা সংকটের জেরে অর্ডার না আসায় তারা সমস্যায় পড়েছেন।

Mita Pal | newsfront.co
মিতা পাল, মুকুট শিল্পী ৷ নিজস্ব চিত্র

পাশাপাশি অর্ডার নেই মুকুট তৈরীর শিল্পীদের কাছেও, ফলে তারাও প্রবল অর্থ সংকটে ভুগছেন। পাশাপাশি করোনা সংকটের জেরে লকডাউন চলতে থাকার কারণে গত চৈত্র মাস থেকে সেভাবে পুজো-পার্বণ না হওয়ায় তৈরি হয়নি কোন ঠাকুর, তাই বালুরঘাটের মৃৎশিল্পীদের চরম অর্থ সংকট তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বাড়ছে বেকারত্ব, কর্মসংস্থানের দাবিতে আন্দোলন

Small business | newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

এমত অবস্থায় তারা রাজ্য সরকারের সাহায্য প্রার্থনা করেছেন।তারা চাইছেন যাতে এই মহা সংকটকালে তাদের যে অর্থ সংকট তৈরি হয়েছে তা দূর করতে রাজ্য সরকার তাদের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের সমস্যা সমাধান করতে সচেষ্ট হন ৷ এটাই এখন তাদের একমাত্র প্রার্থনা।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here