আগামী ৩ দিন প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস, পরিস্থিতি সামাল দিতে তৎপর প্রশাসন

0
52

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

রবিবার থেকেই শুরু হয়েছে বৃষ্টি। সোমবার সকাল থেকে অতি ভারী বৃষ্টিতে ভিজছে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলা। ফলে জেলা থেকে শহরের বিভিন্ন জায়গায় জলযন্ত্রণার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। বঙ্গোপসাগরে যে নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়েছে তা আরও গভীর হচ্ছে। যার কারণে আগামী ৩ দিন প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দুর্যোগ সামাল দিতে তৎপর প্রশাসন।

Cyclone Gulab
ছবি: সংগৃহীত

মৎস্যজীবীদের উদ্দেশে সতর্কতামূলক বার্তা প্রচার করা হচ্ছে জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে। মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ার উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই মুহূর্তে যাঁরা গভীর সমুদ্রে রয়েছেন তাঁদের ফিরিয়ে আনারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

অতি ভারী বৃষ্টির জেরে নদী বা সমুদ্রের জলস্রোতের গতি বেড়েছে। আর সেই কারণেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং, বাসন্তী সহ গোসাবা নদী তীরবর্তী এলাকায় সতর্কতামূলক প্রচার করা হচ্ছে। নিচু জায়গা ছেড়ে সবাইকে উঁচু জায়গায় উঠে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে।

আরও পড়ুনঃ অতি বর্ষণের জেরে বন্যা পরিস্থিতি কেরলে, জলের তোড়ে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল দোতলা বাড়ি

এছাড়াও, পূর্ব মেদিনীপুরের শঙ্করপুর, তাজপুর, মন্দারমনি, জ্যামড়া, শ্যামপুর এলাকায় পরিস্থিতি বেসামাল হলে সেখান থেকে গ্রামবাসীদের সরানোর জন্য প্রস্তুত রয়েছে প্রশাসন। দুর্যোগের আশঙ্কায় রামনগর ১, ২ ও খেজুরি ২ নং ব্লকে ইতিমধ্যেই কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। এলাকা ভিত্তিক ত্রিপল ও শুকনো খাবার মজুত রাখেছে পঞ্চায়েত। মাইকিং করে সতর্ক করা হচ্ছে পর্যটক ও এলাকাবাসীদের। বিকেলের পর থেকে পর্যটকদের সমুদ্রে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। প্রবল বর্ষণে যাতে কোনও মানুষকে বিপদে না পড়তে হয়, তার জন্য আগে থেকে সবরকম ব্যবস্থা করে রাখছে প্রশাসন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here