প্রত্যাখ্যাত হয়ে আত্মঘাতী প্রেমিক, ধৃত প্রেমিকা

0
70

নিজস্ব সংবাদদাতা,আলিপুরদুয়ারঃ

“তুমি নেই আজ আমার পাশে
জানিনা কিভাবে আমি এত ব্যাথা সহি,
আমি একান্ত তোমারই ছিলাম, তোমারই আছি তাই আজও আছি এই ভাবে” । – কবিতার ভাষায় প্রকাশ কাহিনী মত হয়তো রূপ পেল এই প্রেমের কাহিনীটাও ।

দীর্ঘ আট বছরের সম্পর্ক।তার পর বিয়ে করতে অস্বিকার করে প্রেমীকা।সেই অবসাদে আত্মহত্যা প্রেমীকের।প্রেমীকা বিয়ে করতে রাজি না হওয়াতেই ওই যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে থানায় অভিযোগ জানায় মৃত যুবকের পরিবার। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে আলিপুরদুয়ার থানার পুলিশ অভিযুক্ত প্রেমীকা, তার বাবা ও মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিজস্ব চিত্র

সোমবার রাতে তাদের ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।এই ঘটনায় আলিপুরদুয়ারে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে ঘটনাটি আলিপুরদুয়ার শহর লাগোয়া ভোলারডাবরি গ্রামের। মৃত প্রেমীকের নাম পাপাই মল্লিক(২৬)।

গ্রামেরই এক মেয়ের সঙ্গে তার দীর্ঘ ৮ বছর থেকে প্রেমের সম্পর্ক।মেয়ের বাড়িতেও নিয়মিত যাতায়াত করত প্রেমীক।মেয়ের বাড়ির কারও কোন আপত্তি ছিল না। কিন্তু সম্প্রতি বিয়ে করতে চায় প্রেমীক পাপাই। কিন্তু বেকে বসে প্রেমীকা।

অভিযুক্ত প্রেমিকা ।নিজস্ব চিত্র

এর পর ১০ আগষ্ট বাড়ি থেকে ১০০ মিটার দূরে একটি গাছে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে প্রেমীক। ওইদিন রাতেই প্রেমীকা ও তার বাড়ির লোকেদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানায় প্রেমীকের বাড়ির লোকেরা।

সেই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ সোমবার রাতে প্রেমীকা, তার বাবা ও মাকে গ্রেফতার করে।মঙ্গলবার গ্রেফতার তিনজনকেই আলিপুরদুয়ার আদালতে তোলে পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, অভিযুক্ত যুবকের বাড়ির সামনে ধর্ণায় প্রেমিকা

মৃত প্রেমীকের দাদা রনি মল্লিক বলেন, “ দীর্ঘ আট বছর ওদের সম্পর্ক ছিল।কিন্তু সম্প্রতি মেয়েটির তুফানগঞ্জে বিয়ে ঠিক হয়।সেই কারনে ভাইয়ের সঙ্গে বিয়ে করতে অস্বিকার করে ও।

আর এই অবসাদে ভাই আত্মহত্যা করেছে । এর আগেও ওই মেয়েটির এক বোনের সঙ্গে সম্পর্ক করে অন্য একজন ফাঁসি দিয়ে মারা গিয়েছিল। এবার আমার ভাইয়ের সঙ্গে এই ঘটনা ঘটল। ভাই টোটো চালিয়ে মেয়েটির পরিবারে প্রচুর টাকা পয়সা দিয়েছে।

কিন্তু তার পরেও ভাইকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়াতেই ভাই আত্মহত্যা করল। আমরা গ্রেফতার ৩ জনেরই কঠোর শাস্তি চাই। বিয়ের নাম করে দীর্ঘদিন আমার ভাইয়ের সঙ্গে প্রেম করেছে মেয়েটি।”

এদিকে মৃত পাপাই এলাকায় বেশ জনপ্রীয় ছিলেন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485