রহস্যজনক নৃশংস খুন

0
50

পিয়ালী দাস,বীরভূমঃ

বন্ধুকে বাড়িতে পৌঁছে দিতে এসে নৃশংসভাবে খুন হলেন এক যুবক।এই খুন ঘিরে এক রহস্যের বাতাবরণ গড়ে উঠেছে। বীরভূমের সিউড়ি থানার কড়িধ্যা গ্রামের ঘটনা।এই ঘটনায় মৃত যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে ওই বন্ধুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বন্ধু ও তার স্ত্রী সহ  আরো কয়েকজন  পরিচিত এবং বন্ধুকে আটক করেছে।

বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক না অন্য কারনে খুন হতে হয়েছে ওই যুবককে তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ ও পরিবার।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত যুবক হলেন সুব্রত অংকুর। বয়স ২৭ বছর। বাড়ি সিউড়ি থানা মল্লিকপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চাকদহ গ্রামে। তিনি সিউড়ির মোটর বাইকের শোরুম এর মেকানিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে কড়িধ্যা গ্রামের ডোম পাড়াতে কাঁটাতার দিয়ে ঘেরা একটি জায়গা থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃত যুবকের গোটা শরীরে ধারালো অস্ত্রের কোপ বাঁ হাতের কবজি এবং পুরুষাঙ্গ কেটে নেওয়া হয়েছে ।পাশাপাশি পেট উপর থেকে নিচ পর্যন্ত চিরে দেওয়া হয়েছে এবং গলার নলি কাটা। মৃতদেহ সম্পূর্ণ নগ্ন অবস্থায় ছিল যেখান থেকে মৃতদেহটি পাওয়া যায় সেখানেই ঝোপের মধ্যে ওই জামাকাপড় গুলি ছিল ওই স্থান থেকে মদের বোতল গ্লাস এবং গাঁজার কল্কে উদ্ধার হয়েছে। যদিও কাটা অঙ্গ গুলি খুঁজে পাওয়া যায়নি।
এই খুনের ঘটনায় সুব্রতর বন্ধু ও সহকর্মী সঞ্জয় মাল এবং স্ত্রী’র বয়ানে ধরা পড়েছে অসঙ্গতি।

সিউড়ি থানা আইসি দেবাশিস পান্ডা বলেন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে খুনের কারণ পরিস্কার নয়। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485