সিএএ-র প্রতিবাদ করায় আবারও দেশছাড়া এক বিদেশি পর্যটক

0
24

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

সোশ্যাল মিডিয়ায় নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ায় দেশ ছাড়তে হল নরওয়ের এক পর্যটককে। শুক্রবার তিনি জানান, প্রতিবাদের কিছু ছবি তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন। ওই পোস্টের কারণে তাঁকে দেশ ছাড়ার হুমকি দেওয়া হয়। অন্যথায় ফল ভুগতে হবে—এমনটাও বলা হয় তাঁকে।

norwegian tourist | newsfront.co
চিত্র সৌজন্যঃ জেন-মেট জোহানসন, ফেসবুক।

জাতীয় এক গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ফেসবুকে ওই বিদেশি পর্যটক জেন-মেট জোহানসন জানান, ইমিগ্রেশন ব্যুরোর এক আধিকারিক তাঁর হোটেলে উপস্থিত হন এবং যতক্ষণ না তিনি ফেরার টিকিট কাটছেন, ততক্ষণ সেখানেই থাকেন।

আরও পড়ুনঃ ‘খুনি’ মাকে বেকসুর মুক্তি দিল সুপ্রিম কোর্ট

তিনি ওই ফেসবুক পোস্টে জানান, ‘‘আমাকে দেশ ছাড়তে বলা হয়েছে এখনই। অন্যথায় আমার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমি এর ব্যাখ্যা চাই ও লিখিত ভাবে তা দিতে বলি। আমাকে বলা হয় আমি লিখিত ভাবে কিছু পাব না।”

norwegian tourist | newsfront.co
সিএএ-র প্রতিবাদে কোচিতে। চিত্র সৌজন্যঃ নিউজ মিনিট

আরও পড়ুনঃ উপজাতি অনুষ্ঠানে ফাটিয়ে নাচ রাহুলের, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিও

এই প্রসঙ্গে বিদেশিদের আঞ্চলিক নিবন্ধীকরণ দফতরের তরফে জানানো হয়েছে ওই পর্যটককে ভিসা বিধি লঙ্ঘন করার দায়ে দেশ ছাড়তে বলা হয়েছে। চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে, ঠিক এই একই কারণে মাদ্রাজ আইআইটি-র এক জার্মান পড়ুয়া জ্যাকব লিন্ডেনথালকে দেশ ছাড়তে বলা হয়েছিল। তিনিও সিএএ-র প্রতিবাদে সরব হয়েছিলেন।

যদিও ওই নরওয়ের পর্যটক ওই ফেসবুক পোস্টটি ডিলিট করে দেন। জানা গেছে, তিনি ওই পোস্টে আরও জানিয়েছিলেন, ‘‘ব্যুরোর এক আধিকারিক আমি ফ্লাইটের টিকিট না কেনা পর্যন্ত আমার সামনে থেকে যাননি। এখন আমি বিমান বন্দরে যাচ্ছি। এক বন্ধু দুবাইয়ের টিকিটের বন্দোবস্ত করে দিয়েছে। আমি সেখান থেকে সুইডেনের টিকিট পেয়ে যাব।”

তবে এরপর এই নিয়ে তিনি ফেসবুকে আর পোস্ট দেননি। যাঁরা তাঁর পাশে ছিলেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেছেন, এখন তিনি কিছুদিন ব্যক্তিগত সময় কাটাতে চান।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here