বিভিন্ন দাবি নিয়ে সংগঠিত ছাত্র আন্দোলনের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে ‘এস.এফ.আই’ র সমাবেশ বহরমপুরে

0
68

শুভব্রত সরকার, মুর্শিদাবাদঃ

protest
নিজস্ব চিত্র

আজ বহরমপুর ঋত্বিক সদনে সংগঠিত ছাত্র আন্দোলনের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয় ভারতের ছাত্র ফেডারেশন এস.এফ.আই মুর্শিদাবাদ জেলা কমিটির উদ্যোগে l এই অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় ছাত্র ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক ও সি.পি.আই.এমের বালি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী দীপশিতা ধর l

program
নিজস্ব চিত্র

প্রাকৃতিক বিপর্যয়কে উপেক্ষা করে ৪০০ জন তরুণ তুর্কি অংশগ্রহণ করে এই সমাবেশে l পতাকা উত্তোলন করে অথিতি বরণ শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সূচনা হয় অনুষ্ঠানের l বক্তব্য রাখেন নেত্রী দীপশিতা ধর। ডি.ওয়াই.এফ.আই এর রাজ্য কমিটির সদস্য ধ্রুৱজ্যোতি সাহা সহ অন্যানো নেতৃবৃন্দ l

flag
নিজস্ব চিত্র

সমাবেশ থেকে তারা ঘোষণা করেন মুর্শিদাবাদ জেলা সহ সমগ্র পশ্চিমবঙ্গে এখনো সবথেকে বড় ছাত্র সংগঠন এস.এফ.আই l এই অতিমারীতে এই সমাজের অগ্রদূতরা দেবদূতের মতো রেড ভলেন্টিয়ার হিসাবে পাশে দাঁড়িয়েছে মানুষের l মুমূর্ষু রোগীর প্রান বাঁচাতে কখনো ছুটে গিয়াছেন অক্সিজেন সিলিন্ডার হাতে, কখনো বা ক্ষুধার্তদের মুখে তুলে দিয়াছেন অন্ন l তারা আরো জানান সমগ্র দেশে এই ছাত্র আন্দোলনকে আরো মজবুত করতে ইউনিট কমিটি থেকে রাজ্যস্তর পর্যন্ত কমিটিকে আরো শক্তিশালী করতে হবে l গ্রাম থেকে মহানগর সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে হবে তাদের আদর্শকে l সমস্ত ছাত্র সমাজকে নিয়ে যেতে হবে তাদের পতাকা তলে l

আরও পড়ুনঃ মুর্শিদাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু হতে চলেছে আরবি পঠন-পাঠন

সমাবেশ শেষে করোনা বিধি মেনে তরুণ তুর্কিদের মিছিল শহর পরিক্রমা করে l মিছিল থেকে দাবি ওঠে সমস্ত স্কুল কলেজে ভর্তি ফি মুকুব করতে হবে l সমস্ত ছাত্র ছাত্রীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিতে হবে l তারা স্লোগান তোলেন বিকল্প নয় গুগুল জুম্, খোলা হোক ক্লাস রুম l তারা ছাত্র সমাজের কাছে তুলে ধরেন সংগঠিত ছাত্র আন্দোলনের ইতিহাস l তারা জানান মাঠে যখন নেমেছি শেষ রক্তবিন্দু দেয়া আন্দোলন চলবে l আন্দোলন অধিকার ছিনিয়ে নেবার একমাত্র পথ l

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here