মঙ্গলবার দুপুরে পাশাপাশি দুটি গ্রামে দুটি নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করল ব্লক প্রশাসন ও সিনি

0
70

ভাস্কর ঘোষ, কান্দি: – মঙ্গলবার দুপুরে পাশাপাশি দুটি গ্রামে দুটি নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করল ব্লক প্রশাসন ও সিনি। মুর্শিদাবাদের ভরতপুর থানার বিডি শেরপুর গ্রামের গোলাম নবী মির্জার নাবালিকা মেয়ে পিউ খাতুন (১৫) বিয়ে ঠিক করেন। পিউ গয়সাবাদ অচলা বিদ্যামন্দিরে নবম শ্রেণীতে পড়ে। নাবালিকার বিয়ে ঠিক হওয়ার খবর পেয়ে ভরতপুর -১ ব্লকের আধিকারিক ও সিনির লোকেরা ভরতপুর থানার পুলিশ নিয়ে এদিন দুপুরে তাদের বাড়িতে হাজির হয়। ওই নাবালিকার বাবা গোলাম নবী মির্জাকে বোঝানো হয়। তিনি ব্লক প্রশাসনের কর্তাদের কাছে নিজের ভুল স্বীকার করে বলেন, আমি আগে জানতাম না যে আঠারোর আগে মেয়ের বিয়ে দেওয়া উচিত নয়। একন ১৮ বছরের আগে আর মেয়ের বিয়ে দেবনা। এই মর্মে তিনি একটি মুছলেখাও লিখে দেন।
জানা গিয়েছে, বড়ঞা থানার গোদাপাড়া গ্রামের মৃত আবোল শেখের পুত্র খোকন শেখের সঙ্গে ওই নাবালিকার বিয়ে ঠিক হয়।


অন্যদিকে ভরতপুর থানার সাহাবাজপুর গ্রামের চঞ্চল প্রামানিকের নাবালিকা কন্যা কেয়া প্রামানিক (১৫) -র সঙ্গে বড়ঞা থানার বিপ্রখেকর গ্রামের দেবু প্রামানিকের ছেলে মদন প্রামানিকের বিয়ে ঠিক হয়। খবর পেয়ে ভরতপুর -১ ব্লকের বিডিও -র প্রতিনিধি, সিনির লোকেরা, পিয়ার লিডার ও কন্যাশ্রী যোদ্ধারা মঙ্গলবার দুপুরে তাদের বাড়িতে হাজির হন। ওই নাবালিকার বাবাকে ভালো করে বোঝানো হলে তিনি নিজেই বিয়ে বন্ধ করে দেন। বিডিওকে মুচলেখা লিখে দেন, তিনি তাঁর মেয়ের বিয়ে আর কোনভাবেই ১৮-র আগে দেবেন না।
ভরতপুর -১ ব্লকের বিডিও অঞ্জন চোধুরি বলেন, এদিন সিনি ও ভরতপুর থানার পুলিশকে নিয়ে যৌথভাবে বিডিশেরপুর ও সাহাবাজপুরে দুটি নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করা হয়। ওই নাবালিকারা পড়তে চাইলে ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের সবরকম সাহায্য করা হবে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here