চা-বাগিচা খোলার দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি স্মল টি গ্রোয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের

0
8

পিয়া গুপ্তা, উত্তর দিনাজপুরঃ

করোনা যেভাবে দেশে ছড়াচ্ছে, সেখানে দাঁড়িয়ে জনগনকে এই ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচাতে লকডাউনই এক মাত্র ভরসা। তার জন্য ইতিমধ্যেই দেশ সহ সমগ্র রাজ্যে চলছে এই লকডাউন। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে প্রতিটি মানুষের রোজগারের অবস্থা আজ সংকীর্ণতায় এসে ঠেকেছে।

tea garden | newsfront.co
চা বাগান। নিজস্ব চিত্র

এমনকি ইতিমধ্যেই এই লকডাউনের সময়সীমা বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আর এরই মাঝে বন্ধ হয়ে রয়েছে উত্তরবঙ্গের চা বাগানগুলি। পাশাপাশি চা বাগান বন্ধ থাকার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছে প্রায় কয়েকশো চা শ্রমিক।

closed tea factory | newsfront.co
বন্ধ চা কারখানা। নিজস্ব চিত্র

আরও পড়ুনঃ ক্ষনিকের ঝড়ে আশ্রয়হীনদের অন্ন জোগাতে কমিউনিটি কিচেন খুলল তৃণমূল

সে কারণেই বটলিফ ফ্যাক্টরি ও স্বনির্ভর গোষ্ঠী পরিচালিত চা ফ্যাক্টরি খোলার দাবি জানিয়ে শুক্রবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি পাঠাল কনফেডারেশন অব স্মল টি গ্রোয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন। মূলত ক্ষুদ্র চা চাষি সংগঠন সিসটার সর্বভারতীয় সভাপতি বিজয় গোপাল চক্রবর্তী জানান, ‘ক্ষুদ্র চা চাষিদের বাঁচাতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং, উত্তর দিনাজপুর ও কোচবিহারের জেলাশাসককে চিঠি পাঠানো হয়েছে’।

Debasis Pal | newsfront.co
দেবাশীষ পাল, সম্পাদক। নিজস্ব চিত্র

উত্তর দিনাজপুর স্মল টি গ্রোয়ার্স ওয়েলফেয়ার অরগানাইজেশনের সম্পাদক দেবাশীষ পাল বলেন, ‘যেটুকু ক্ষতি হওয়ার হয়েছে। আমাদের দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। এখনও বাগানের পাতা তোলা ও ফ্যাক্টরি খোলার অনুমতি দিলে ক্ষুদ্র চা চাষিরা অন্তত প্রানে বেঁচে যাবে’।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485