মায়ের বকুনিতে আত্মঘাতী পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র

0
74

পিয়া গুপ্তা,উত্তর দিনাজপুরঃ

মায়ের বকুনি খেয়ে অভিমানে আত্মঘাতী হল পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্র। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ শহরের দেবীনগর এলাকায়। মৃত কিশোরের নাম কৃশ সিং(১১)।মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতালে পাঠানোর পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

আত্মঘাতী কৃশের নিথর দেহ।নিজস্ব চিত্র

তিন সন্তানের মধ্যে সবচেয়ে ছোট ছেলে কৃশ একটু দুরন্ত প্রকৃতির।রায়গঞ্জ পুরসভা এলাকার ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা পেশায় লরিচালক রীতেশ সিং ও স্ত্রী মামনি সিং এর ছোট ছেলে কৃশ রায়গঞ্জের কৈলাশ চন্দ্র রাধারানী বিদ্যাপীঠের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্র।আগামী ৩ ডিসেম্বর থেকে স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু। কিন্তু কৃশ পড়াশুনা করতে বসত না।কৃশের থেকে একটু বড় তার দাদা বিশাল জানিয়েছে,গতকাল বিকেলে বাইরে বেড়িয়ে যায় কৃশ।পরে বাড়িতে এলে মা মামনি দেবী পড়াশুনা নিয়ে কৃশকে বকাবকি করেন।চড় থাপ্পরও দেন।এরপর মামনি দেবী বাইরে কাজে চলে যান।বাড়ি ফাঁকা পেয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে মায়ের ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলে পরে কৃশ। পরে বিশাল বাড়িতে এসে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে লোকজন ডাকাডাকি করে।ঘরের দরজা ভেঙে কৃশের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।শোকে কান্নায় ভেঙে পরেন মা মামনি দেবী।এই ঘটনায় দেবীনগর এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

আরও পড়ুনঃ ফাঁসিদেওয়ায় যুবকের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485