চোর সন্দেহে শিক্ষককে বেধড়ক মারধর, ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে নিলেন তৃণমূল কাউন্সিলর

0
54

মোহনা বিশ্বাস, ওয়েব ডেস্কঃ

চোর সন্দেহে এক শিক্ষককে বেধড়ক মারধর। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওই শিক্ষককে। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ জেলার ইংরেজবাজার পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মালঞ্চপল্লি এলাকায়।

teacher beaten at malda
ছবি সৌজন্যে : টিভি নাইন বাংলা

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত ওই শিক্ষকের নাম সুদীপ টুডু। তিনি মালদহের শিক্ষা ক্ষেত্রে পরিচিত মুখ। ওই স্কুল শিক্ষককে প্রথমে চোর অপবাদ দিয়ে বেধড়ক মারধর শুরু হয়। শুধু তাই নয়। পরে পরিস্থিতি আরও জটিল হলে তাঁর উপর পোষা কুকুরকে ছেড়ে দেন তৃণমূল কাউন্সিলর পরিতোষ চৌধুরি। তাঁর নির্দেশেই ঘটে এই গোটা ঘটনাটি।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত সুদীপ টুডু হবিবপুর থানার মানিকোড়া স্কুলের ফিজিক্যাল এডুকেশনের শিক্ষক। ওই স্কুল শিক্ষকের পরিবারের অভিযোগ, রবিবার মালদহের মালঞ্চপল্লি এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন তিনি। মালদহের ইংরেজবাজার পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর তথা ওয়ার্ড কো-অডিনেটর পরিতোষ চৌধুরিও ওই এলাকারই বাসিন্দা।

রবিবার পরিতোষ বাবুর বাড়ি থেকে সাইকেল চুরি করে পালাচ্ছিল এক যুবক। ওই সময় একই পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন সুদীপবাবুও। এরপরই তাঁকে চোর সন্দেহে বেধড়ক মারধর করে তৃণমূল কাউন্সিলরের লোকজন। নিজেকে নির্দোষ বলে দাবী করলেও সুদীপবাবুর কথায় কর্ণপাতই করেননি পরিতোষ চৌধুরি।

আরও পড়ুনঃ অতি বর্ষণের জেরে বন্যা পরিস্থিতি কেরলে, জলের তোড়ে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল দোতলা বাড়ি

তারপর সুদীপবাবুর পরিবারের লোক গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই প্রহৃত শিক্ষক। ইংরেজবাজার থানায় পরিতোষ চৌধুরির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ওই শিক্ষক। তবে আহত শিক্ষকের করা অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। এদিকে, ঘটনায় অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা পরিতোষ চৌধুরি নিজের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here