আমাদের অজান্তেই করে চলি ভুল চার্জিং, সতর্ক হন অবিলম্বে

0
122

ঈপ্সিতা নায়ক

মোবাইল ফোন হাতে না থাকা মানে তো জীবনটাই অসম্পূর্ণ এখন। টেলিফোনের জগৎ থেকে বেরিয়ে আমরা অনেকটা এগিয়ে এসেছি এখন যেখানে ফোন মানে শুধুই কলিং নয়। সমগ্র বিশ্ব আমাদের মুঠোফোনে, আমাদের ওঠাবসার সঙ্গী হয়ে উঠছে তাই এই ফোন। কিন্তু আমাদের অতিপ্রিয় এই যন্ত্রটির কতটা খেয়াল আমরা রাখি বা রাখার কথা ভাবি! আমাদের অজান্তেই এমন অনেক ভুল করে ফেলি তা যন্ত্রের কর্মক্ষমতাকে করে দেয় কম। আর অবুঝের মতোই পরে আমরাই দোষারোপ করি। কিন্তু যন্ত্রের অসুবিধা তো আর সেই জড় বলতে পারবে না! আমাদেরকেই বুঝে খেয়াল রাখতে হবে।

Mobile charger | newsfront.co
প্রতীকী চিত্র

ঠিক যেমন আমরা মোবাইল ফোন ছাড়া অচল, তেমনই ফোনও অচল তার সঙ্গী যন্ত্র ছাড়া। ঠিকই ধরেছেন, মোবাইল ফোন চার্জার। ফোনের যত্নের সাথে সাথে তারও সমান যত্নের প্রয়োজন, কিভাবে? দেখে নেওয়া যাক।

১. আমরা প্রায় সময়েই ফোনের চার্জার সকেটে লাগিয়ে রাখি। হয়তো এতে ইলেকট্রিসিটি বিলে কোনো প্রভাব পড়ে না তবে ট্রান্সফর্মার যে হিট রিলিজ করে সেই তাপের সাথে যদি কোনোভাবে চার্জারের সংযোগ হয় তবে শর্ট-সার্কিট হওয়ার সম্ভাবনা তৈরী হয়। ফলে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থেকেই যায়।

২. ফোনের ব্যাটারি সাধারণত লিথিয়াম বেসড হয়ে থাকে। এই ব্যাটারিকে যদি পুরো ড্রেন আউট করা হয় তবে তা ক্রমশ ক্ষতির দিকে যায়। অর্থাৎ যেমন ব্যাটারি পুরো শেষ করে চার্জ দেওয়া উচিত নয় তেমনই ১০০% চার্জ দেওয়া উচিত নয়। শুনতে অবাক লাগলেও গবেষণা এটাই বলে। এছাড়া অনেকেরই অভ্যাস থাকে সারা রাত ফোন চার্জ দেওয়ার, সেক্ষেত্রে সম্পূর্ণ চার্জ হওয়ার পরেও তা পাওয়ার কানেক্টেড থাকে। এটি ফোনের ব্যাটারির জন্য একেবারেই অপ্রয়োজনীয়। এভাবে আমরাই যন্ত্রটিকে খারাপ হওয়ার দিকে এগিয়ে দিই ক্রমশ অজান্তেই।

আরও পড়ুনঃ জনপ্রিয় বাঙালি খাবারের উৎপত্তিস্থল

৩. চার্জে লাগিয়ে ফোন ব্যবহার করা হয়তো ফোনের জন্য সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকারক। তবে এটা জেনেও সবচেয়ে বেশি শতাংশ মানুষ এভাবেই ফোন ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু আপনার এই অভ্যাসের ফলে ফোনের ব্যাটারির উপর প্রচন্ড চাপ পড়ে, অনেকসময় ব্যাটারি ফেটেও পর্যন্ত যায়। চার্জ থাকাকালীন অনেকসময় কল এলে তা আমরা সেই অবস্থাতেই তুলে নিই, এই ব্যাপারে সচেতন হওয়া একান্ত আবশ্যক।

৪. ব্যাটারিগুলির ক্ষেত্রে যে প্রধান জিনিসগুলি হওয়া উচিত নয় তা হ’ল অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়া। যখন আমরা ফোন কভার দিয়ে ফোনগুলি চার্জ করি তখন তাপের বেশ কিছু অংশ তার মধ্যে আটকা পড়ে এবং এর ফলে ব্যাটারি এবং মোবাইলের অন্যান্য অংশগুলি গরম হয়ে যায়। সুতরাং, প্লাগ দেওয়ার আগে সর্বদা ফোনের কভারটি সরিয়ে ফেলুন।

আরও পড়ুনঃ অনলাইন ক্লাস শিশুদের চোখের ক্ষতি করছেঃ ডঃ রোহিনী

৫. ফোন কেনার সময় তখন সেই কোম্পানি একটি কম্প্যাটিবল চার্জার দেয়। সুতরাং, আপনার কাছে উপলভ্য যে কোনও চার্জার বিশেষত এডাপ্টার ব্যবহার করবেন না তা নিশ্চিত করুন। অন্য চার্জারগুলির ক্ষেত্রে ব্যাটারির জন্য প্রয়োজনীয় শক্তি ও প্রেরিত শক্তি কম বেশি হতে পারে। তাই আপনার চার্জারটি হারিয়ে যায় বা কাজ না করে তবে এটি পুনরায় অর্ডার করুন এবং কিন্তু অজান্তে যে কোনো চার্জার ব্যবহার করবেন না।

৬. কখনও কখনও আমরা চার্জ দেওয়ার জন্য ল্যাপটপ ইউএসবি পোর্টগুলিও ব্যবহার করি। তবে আপনি কি লক্ষ্য করেছেন যে চার্জিং নিয়মিত সকেট ব্যবহারের চেয়ে বেশি সময় নেয় এবং এটি ব্যাটারির ফাস্ট চার্জ অপশন সক্রিয় করে না? এজন্য সর্বদা ওয়াল সকেট বেছে নেওয়া উচিত।

মাসে একবার ফোনের ব্যাটারিকে সম্পূর্ণ অর্থাৎ ১০০% চার্জ দেওয়া উচিত। এছাড়া রোজকার জন্য ২০%-৮০% -এর মধ্যে রাখা এর জন্য শ্রেয়। এই খুঁটিনাটি বিষয়গুলির দিকে খেয়াল করলে আমরা গ্যাজেটগুলির যত্ন আরো ভালোভাবে নিতে পারব।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here