তৃণমূল সংখ্যালঘু সেলের ধিক্কার মিছিল

0
77

উমার ফারুক,হরিশ্চন্দ্রপুর:আফরাজুলের নৃশংস হত্যার প্রতিবাদে পথে নামল মালদা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সংখ্যালঘু সেল।এদিন সেলের উদ্যোগে ধিক্কার মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয় সামসীতে ।

মিছিলের একাংশ

মতিগঞ্জ বাজার থেকে বিকেল ৪ টায় ধিক্কার মিছিল শুরু হয়ে সামসী ৪২০ মোড়ে এসে শেষ হয়।মিছিলে নেতৃত্ব দেন তৃণমূল কংগ্রেস সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি মোশারফ হোসেন।তিনি জানান-বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে আইনের শাসন নেই।সেখানে অসহিষ্ণুতার বাতাবরণ তৈরি হয়েছে,মানবতা ও গণতন্ত্র প্রতিনিয়ত ভূলুণ্ঠিত হচ্ছে।আর কেন্দ্রের মোদি সরকার সেই ফ্যাসিবাদী দের মদদ দিচ্ছে।রাজস্থানে কর্মরত বাংলার শ্রমিক আফরাজুলকে নৃশংস ও অমানবিক ভাবে হত্যা করা হয়েছে।তিনি এই পাশবিকতার তীব্র নিন্দা জানান ও খুনির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।তিনি রাজ্য সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন-নিহতের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্য সরকার মানবিকতার পরিচয় দিয়েছে।তাই মানবিক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে ধন্যবাদ জানাই।ধিক্কার মিছিলে তৃণমূল নেতা কর্মীদের সঙ্গে সাধারণ মানুষ ও পা মেলান
মিছিল শেষে সামসী ৪২০ মোড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সংখ্যালঘু সেলের কার্যকরী সভাপতি এটিএম রফিকুল হাসান।তিনি বক্তব্যে বলেন-আফরাজুল হত্যা কোন ব্যক্তির হত্যা নয় এটি মানবতর হত্যা।জাতি ধর্মের ঊর্ধে উঠে এই নৃশংসতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার জন্য সকল শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষ কে তিনি আহ্বান জানান।এদিনের সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন রতুয়া-১ব্লকের নেতা হেসমুদ্দিন আহমেদ,চাঁচল-২ব্লকের নেতা হবিবুর রহমান,হরিশ্চন্দ্রপুর১,চাঁচল-১ও২ এবং রতুয়া-১ও২ ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেস সংখ্যালঘু সেলের নেতৃত্ব, সামসী অঞ্চল সভাপতি আতাউর রহমান, স্নেহাশিস পাল, তাপস সাহা, ভবেশ সাহা সহ অনেকেই।সমাবেশ শেষে সন্ধ্যার পরে মোমবাতি জ্বালিয়ে সামসী বাজার পরিক্রমা করা হয়।প্রায় হাজার খানেক মানুষ স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এই মিছিলে অংশ গ্রহণ করেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here