লকডাউনে আটকে পড়া দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা শ্রমিকের অনাহারে মৃত্যু দিল্লিতে

0
7644

 সিমা পুরকাইত, দক্ষিণ ২৪ পরগণাঃ

দিল্লিতে কাজে গিয়ে লকডাউনের জেরে মৃত্যু হলো দক্ষিণ ২৪ পরগনার এক পরিযায়ী শ্রমিকের। মৃত শ্রমিক মনিরুল পাইক(২৭) উস্থি থানা এলাকার হটুগঞ্জ পুর্ব পাড়ার বাসিন্দা। পরিবার সূত্রে জানা যায়, দেড় মাস আগে মনিরুল পাইক দিল্লিতে কাজে যায়।

lady |newsfront.co
মৃতের স্ত্রী সন্তান। নিজস্ব চিত্র

সেখানে সে দিনমজুরের কাজ করতো। এরপরেই করোনা আতঙ্কের জেরে সারা দেশ জুড়ে লকডাউনের ফলে বন্ধ হয়ে যায় মনিরুলের কাজ, এমনকি বাড়ি ফিরতে না পেরে দিল্লিতে আটকে পড়ে মনিরুল পাইক। এরপরেই লকডাউনের মাঝে দিল্লিতে অসুস্থ হয়ে পড়া মনিরুলকে তার সাথে থাকা সহকর্মীরা দিল্লির গ্রীন পার্কের কাছে একটি হাসপাতালে ভর্তি করে।

lady |newsfront.co
পরিবারের আর্তনাদ। নিজস্ব চিত্র

এরপরেই বাড়ির লোকজনের কাছে ফোন আসে দিল্লি থেকে যে মনিরুল পাইক অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তী। গতকাল পরিবারের লোকজন ফোন মারফৎ মনিরুল পাইকের মৃত্যুর খবর পায়। এরপরেই কান্নায় ভেঙে পড়ে গোটা পরিবার।

boy |newsfront.co
নিজস্ব চিত্র

আরও পড়ুনঃ কর্মহীন সত্তরটি পতিতা পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী দিলেন তৃণমূল কাউন্সিলর

জানা যায় মইদুল পাইক সংসারের একাই রোজগেরে ছিলেন। বাড়িতে স্ত্রী ছোট্ট মেয়ে ও বাবা মা রয়েছে। দিল্লি থেকে দিন মজুরের কাজ করে টাকা পাঠালে তবেই সংসার চলতো। অবশ্য মনিরুল পাইকের বাবার দাবি লকডাউনের ফলে অনাহারে চিন্তায় অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয়েছে মনিরুলের।

people |newsfront.co
স্থানীয় বাসিন্দা। নিজস্ব চিত্র

তাই রাজ্যের বাহিরে যে সমস্ত শ্রমিকেরা আটকে পড়েছে তারা যাতে নিরাপদে থাকে তার ব্যবস্থার আর্জি জানায় সরকারের কাছে। পাশাপাশি দিল্লি থেকে অ্যাম্বুলেন্স করে মৃতদেহ বাড়ি ফেরানো হচ্ছে বলেও জানায় পরিবারের লোকজন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91-9593666485