কলেজে ক্লাস হয়নি ৩৩ মাসেও, বিবেকের তাড়নায় বেতনের টাকা ফেরত দিলেন অধ্যাপক

0
23

নিজস্ব প্রতিবেদন, নিউজ ফ্রন্টঃ

কলেজে চাকরীতে যোগদান ২০১৯ সালে, আর তার পর থেকেই করোনা অতিমারিকালে কার্যত বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অনলাইন ক্লাস চললেও ক্লাসে আসেননি পড়ুয়ারা। বিবেকের তাড়নায় ৩৩ মাসের বেতন কলেজকে ফেরত দিলেন অধ্যাপক। বিহারের মুজাফফরপুরের নীতিশেশ্বর কলেজ! কলেজ সূত্রের খবর কলেজেরই একজন সহকারী অধ্যাপক নিজের ৩৩ মাসের বেতন বাবদ মোট ২৪ লক্ষ টাকা ফিরিয়ে দিয়েছেন। বিআর আম্বেদকর বিহার ইউনিভার্সিটির (BRABU) রেজিস্ট্রারের হাতে  নিজের ৩৩ মাসের বেতন ২৩ লক্ষ ৮২ হাজার  ২২৮  টাকার একটি চেক তুলে দিয়েছেন ঐ সহকারী অধ্যাপক। সংবাদ মাধ্যমের সামনে লালন কুমার বলেন, পড়ুয়াদের না পড়িয়ে বেতনের টাকা নিতে তাঁর বিবেক সায় দেয়নি, সেকারণেই  নিজের ৩৩ মাসের বেতনের টাকার পুরোটাই  ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

ছবিঃ ইন্ডিয়া টাইমস 

লালন কুমার বলেন যে কলেজে শিক্ষার কোনও পরিবেশ তিনি দেখেননি। । নীতিশেশ্বর কলেজে প্রায় ৩ হাজার ছাত্রছাত্রী রয়েছেন, যাদের মধ্যে প্রায় ১,১০০ পড়ুয়া হিন্দি অনার্স নিয়ে পড়াশুনা করছেন বলে নথিভূক্ত কিন্তু কাউকেই ক্লাসে দেখা যায়নি। মহামারীর আগেও কেন কলেজে পড়ুয়ারা অনুপস্থিত ছিল জানতে চাইলে কলেজের অধ্যক্ষ মনোজ কুমারের থেকে কোন সদুত্তর মেলেনি।

আরও পড়ুনঃ পঞ্চায়েত সদস্য এবং দুই তৃণমূল নেতার খুনের ঘটনায় রাজনৈতিক চাপানোতর ক্যানিং-এ

বিআর আম্বেদকর বিহার ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার আর কে ঠাকুর এই পদক্ষেপের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, “লালন কুমার যা করেছেন তা খুবই অস্বাভাবিক সেই সঙ্গে প্রশংসনীয়। আমি ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলেছি। শ্রীঘ্রই কলেজের অধ্যক্ষের থেকে পুরো বিষয়টির একটি ব্যাখ্যা চাওয়া হবে”। দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিন্দিতে স্নাতকোত্তর এবং দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি এবং এমফিল সম্পন্ন করেছেন লালন কুমার।  পিজি বিভাগে স্থানান্তরের জন্য কিছুদিন আগেই তিনি আবেদন করেন।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here