রোজভ্যালি কাণ্ডে কেঁচো খুঁড়তে সাপ, কেকেআর-সহ বাজেয়াপ্ত সেন্ট জেভিয়ার্সের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট

0
66

নিউজফ্রন্ট, ওয়েবডেস্কঃ

রোজভ্যালিকাণ্ডে এবার আইপিএল খেলায় অংশগ্রহণকারী দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) কয়েক কোটি টাকার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। অভিযোগ উঠেছে, চিটফান্ড সংস্থার থেকে হিসেবের বাইরে টাকা নিয়েছে কেকেআর।
rose valley | newsfront.co
চিত্র সৌজন্যঃ টুইটার, টেলিগ্রাফ ও টাইমস অফ ইন্ডিয়া
এছাড়াও ইডির তরফে জানানো হয়েছে, কলকাতা নাইট রাইডার্স, সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ ও মাল্টিপল রিসর্ট প্রাইভেট লিমিটেডের প্রায় ৭০ কোটি টাকা মূল্যের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।
জানা গেছে, আর্থিক তছরূপ প্রতিরোধ আইনে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে সেন্ট জেভিয়ার্স এবং কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টও। ইডি জানিয়েছ, এই তিন সংস্থার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট মিলিয়ে মোট ১৬.২০ কোটি টাকা রয়েছে।
কলকাতা নাইট রাইডার্সের অন্যতম স্পনসর ছিল গৌতম কুণ্ডুর সংস্থা রোজভ্যালি। তাই ২০১২ সাল থেকেই কেকআর-এর সঙ্গে নাম জড়ায় রোজভ্যালির। ইডির ঘোষণার পরই সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের তরফে কেকেআর ও রেড চিলি এন্টারটেনমেন্টের সিইও ভেঙ্কি মাইশোরের কাছে মেসেজে প্রতিক্রিয়া চাওয়া হয়।
কিন্তু এর কোনও জবাব দেননি তিনি।
এখানেই শেষ নয়। জানা গেছে, পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগর এবং মহিষাদলে মোট চব্বিশ একর জমি বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। পাশাপাশি নিউটাউন অর্থাৎ জ্যোতিবসু নগরের একটি সম্পত্তি ও মুম্বইয়ের একটি ফ্ল্যাটও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ইডির তরফে।
এক বিবৃতিতে ইডি জানিয়েছে, বাজার থেকে সব মিলিয়ে রোজভ্যালির আয় হয়েছিল ১৭,৫২০ কোটি টাকার বেশি। এর মধ্যে সংস্থা লগ্নিকারীদের ফেরত দিতে হয়েছে ১০,৮৫০ কোটি টাকা। বাকি রয়েছে ৬,৬৭০ কোটি টাকা, যা সম্পূর্ণ বেআইনি।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের মার্চ মাসে রোজভ্যালির কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুকে গ্রেফতার করে ইডি। বর্তমানে সে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রয়েছে। আর্থিক তছরূপ প্রতিরোধ আইনের আওতায় এফআইআর-এর ভিত্তিতে রোজভ্যালি মামলার তদন্ত এখনও চলছে। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের তরফে রোজভ্যালির একাধিক সংস্থার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ, মানুষকে ভুয়ো প্রতিশ্রুতি দিয়ে অর্থ আদায় করেছে রোজভ্যালি।
নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here