কেতুগ্রামে জাল ড্রাফট কান্ডে গ্রেফতার তিন

0
67

শ্যামল রায়,কাটোয়াঃ

বিভিন্ন ধরনের শাড়ি এবং কাঁথাস্টিচ কিনবে বলে দুই লক্ষাধিক টাকার ড্রাফট জমা দিয়ে ধরা পড়ে গেলেন তিন দুষ্কৃতি।দুটি ড্রাফট জাল বলে জানা যায়। এরপর ব্যবসায়ী সঞ্জয় প্রসাদ কর্মকার কেতুগ্রাম থানার খবর দিয়ে দুষ্কৃতিদের তুলে দেয় পুলিশের হাতে। দুষ্কৃতিদের নাম হল অরূপ চক্রবর্তী অনুপ দাস ও বাপ্পা দাস। অরূপ চক্রবর্তীর বাড়ি সমুদ্রগড় বাকি দুজনের বাড়ি নদীয়া জেলার নবদ্বীপে।ধৃতদের পাঁচ দিনের জন্য পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে।
জানা গিয়েছে যে কয়েকদিন আগে রঞ্জিত সিং ওরফে অরূপ চক্রবর্তী কেতুগ্রামের ডাঙ্গায় সঞ্জয় প্রসাদ কর্মকারের কাছে আসে কিছু পোশাক এবং কাঁথাস্টিচ কিনবে বলে। এই পণ্যসামগ্রী দেখার পরে পাকা কথা হয়ে যায় এবং পোশাকগুলো কিনতে শনিবার গ্রামে আসে। ওই সমস্ত পোশাক সারিকা তার স্ত্রী নেবে বলে  দুই লক্ষ টাকার দুটি ড্রাফট দেয়।
তৎক্ষণাৎ ঐ দুটি ড্রাফট নিয়ে স্থানীয় ব্যাংকে পরীক্ষা করতে যায় ব্যবসায়ীর এক কর্মচারীকে দিয়ে। ব্যাংকে পরীক্ষা করাতে গিয়ে ধরা পড়ে যে এই ড্রাফট দুটি ভুয়ো।
তৎক্ষণাৎ কেতুগ্রাম থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে গ্রেফতার করে দুষ্কৃতিদের।এই চক্রে আরো কে বা কারা যুক্ত খতিয়ে দেখতে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে দুষ্কৃতিদের।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here