কল্যাণীর প্রবীণ ও তরুণরা সাংস্কৃতিক প্রোগ্রামের মধ্য দিয়ে ভরিয়ে তুলল দুর্গোৎসবের মহা আয়োজন

0
119

ফারুক আহমেদ, কল্যাণী:

নদীয়া জেলার মধ্যে কল্যাণী রাজ্যের শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য পরিচর্যা ও খেলাধুলার একটি উল্লেখযোগ্য প্রাণকেন্দ্র। কল্যাণীর বি ১৫ লেকপল্লী সার্বজনীন দুর্গোৎসব সমিতির উদ্যোগে প্রতিদিন বিকালে সাংস্কৃতিক প্রোগ্রাম ছিল চোখে দেখার মতোন। আজ মহানবমীতে এলাকার প্রতিভার বিকাশ দেখতে বহু মানুষ এসেছিলেন।
সংগিত, কবিতা পাঠ, আবৃত্তি, নাটক, নৃত্য পরিবেশন ছিল চোখে দেখার মতোন। এছাড়াও একটা বাড়তি পাওনা হল লেকভিউয়ের সাত্বিক বিশ্বাস দুর্গা মায়ের ছবি এঁকেছেন যা সকলকেই মুগ্ধ করল। বি ১৫ লেকপল্লীর বাসিন্দাদের কচিকাঁচাদের নিজস্ব প্রোগ্রাম ছিল আজ যা সকলকেই মুগ্ধ করে দিল। একটা দারুণ পুজোর আনন্দঘন আমেজের মধ্য দিয়ে সকলেই এই আয়োজন উপভোগ করলেন।এছাড়াও প্রতিদিন ভুরিভোজের আয়োজনও ছিল যা সকলকেই পরম তৃপ্তি দিল একসংগে সকলে বসে এই খাওয়ার আনন্দই আলাদা।
এদিন অনেকেই উপস্থিত ছিলেন আমলা, লেখক, প্রকাশক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন পেশার বিশিষ্টজন।
ফুল, পাখি, গাছ-গাছালিতে ভরা কল্যাণীর লেকপার্কটি। এক আদর্শ উদ্যানে প্রতিদিন দুর্গোৎসবের দুপুর-বিকেল ভালোই কাটল সবার।
দুর্গোৎসবের এই পুজোর কয়েকটা দিন সকলের খুব খুব আনন্দে কাটে প্রতিবছর।
এবারও কল্যাণীর বি ১৫ লেকপল্লী সার্বজনীন দুর্গোৎসব সমিতির পুজো এলাকার মানুষের মনে দাগ কাটল। কচিকাঁচাদের পাশাপাশি প্রবীণ ও তরুণরা দারুণ ভাবে সাংস্কৃতিক প্রোগ্রামের মধ্য দিয়ে ভরিয়ে তুলল দুর্গোৎসবের মহা আয়োজন।

এছাড়াও কল্যাণীর সাতের পল্লি দুর্গোৎসব কমিটির দুর্গা পুজোর আয়োজনও বেশ সাড়া ফেলেছে। দুর্গা মায়ের প্রতিমা এবার দেখার মতোন হয়েছে এই পূজামণ্ডপে না এলে জানাই যাবে না। অনেকেই মিস করল না এসে। আর বিশেষ ভাবনাটা গেটের কাছে সকলেই পড়েছেন আর আগত সকল দর্শকবৃন্দ মুগ্ধ ও বিমুগ্ধ হয়েছেন।
কল্যাণী পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা নব কল্যাণীর রূপকার ড. নীলিমেশ রায়চৌধুরী সকল কল্যাণীর বাসিন্দা ও প্রতিমা দর্শনকারীদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়েছেন। সফল ও সুন্দর ভাবে প্রতিমা দর্শন করিদের কাছে তিনি আবেদন রেখেছেন সারা বছর সব সম্প্রদায়ের মধ্যে এভাবেই সম্প্রীতির বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার।
ড. নীলিমেশ রায়চৌধুরী আগামী দশ বছরের দুর্গা পুজোর তারিখ জানিয়েছেন এই প্রতিবেদকে।
2017 : 26 সেপ্টেম্বর থেকে 30 সেপ্টেম্বর।
2018 : অক্টোবর থেকে 19 অক্টোবর।
2019 : 4 অক্টোবর থেকে 8 অক্টোবর।
2020 : 21 অক্টোবর থেকে 26 অক্টোবর।
2021 : 11 অক্টোবর থেকে 15 অক্টোবর।
2022 : 1লা অক্টোবর থেকে 5 অক্টোবর।
2023 : 20 অক্টোবর থেকে 24 অক্টোবর।
2024 : 9 অক্টোবর থেকে 13 অক্টোবর।
2025 : 28 সেপ্টেম্বর থেকে 2 অক্টোবর।
তিনি বলেন অনেক সময় আছে আগামী দশ বছরের পুজোতে কি কি করবেন তা ঠিক করার।

এবছর মানবিক উদ্যোগ নিয়ে গরিব মানুষের দিল জিতে নিলেন নদীয়া জেলার ভূমিপুত্র তথা সকলের কল্যাণে নিবেদিত প্রাণ গৌরিশংকর দত্ত।

দুর্গাপুজোর খরচ কমিয়ে এলাকার গরিব মানুষদের বস্ত্র বিতরণ করেছেন বেতাইয়ের সেবা সমিতির উদ্যোগে। নদীয়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি ও জনপ্রিয় বিধায়ক গৌরিশংকর দত্ত বরাবর গরিব মানুষের পাশে থাকেন তাঁদের সার্বিক বিকাশে প্রতিনিয়ত কাজ করেন। তাই এলাকার মানুষের আর্শিবাদ সবসময় তাঁর মাথার উপর আছে। তিনি একজন বিশিষ্ট লেখকও বটে। তাঁর লেখাও মানুষকে মুগ্ধ করে।

নিউজফ্রন্ট এর ফেসবুক পেজে লাইক দিতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp এ নিউজ পেতে জয়েন করুন আমাদের WhatsApp গ্রুপে
আপনার মতামত বা নিউজ পাঠান এই নম্বরে : +91 94745 60584

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here